ওয়েবডেস্ক: কলকাতার মেয়ো রোডে এসএসসি শিক্ষক চাকরিপ্রার্থীদের অনশনে নতুন মোড়। অনশনকারীরা শনিবার জানিয়েছিলেন, এ দিন সকালে অনশনস্থলের কাছে পুলিশ এসেছিল। এমনকী মহিলা পুলিশের একটি বিরাট বাহিনীও সেখানে ছিল বলে তাঁরা দাবি করেছেন। এ দিনই জানা গিয়েছে, ওই জায়গা থেকে অনশন তোলার জন্য কলকাতা পুলিশকে চিঠি দিয়েছে সেনা বাহিনী।

রাজ্যের শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগ ও চাকরির দাবিতে টানা ২৪ দিন ওই জায়গায় অনশন করছেন প্রায় ৪০০ জন চাকরিপ্রার্থী। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা-নেত্রী-সহ সমাজের বিভিন্ন অংশের প্রতিষ্ঠিতরা ওই অনশনস্থলে গিয়ে অনশনকারীদের সমর্থন জানিয়েছেন। ইতিমধ্যে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভরতি হওয়ার ঘটনাও ঘটেছে একাধিক।

এ দিন জানা যায়, কলকাতার নগরপালকে চিঠি দিয়ে সেনা বাহিনী জানিয়েছে, অনশনস্থল অবিলম্বে খালি করতে হবে।

তবে পুলিশ সূত্রে খবর, সেনা চিঠি দেওয়ার পর অনশনকারীদের সঙ্গে আলোচনায় বসার সম্ভাবনা রয়েছে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের। ফলে এখনই অনশনকারীদের তুলছে না পুলিশ। আলোচনার পর কী সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, সে দিকেই তাকিয়ে রয়েছে পুলিশ।

[ আরও পড়ুন: এসএসসি চাকরিপ্রার্থীদের অনশন মঞ্চে বিমান বসু ]

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার সন্ধ্যায় সাংবাদিক বৈঠক করে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানান, “আইন মেনেই নিয়োগ করা হবে এসএসসিতে। অনশনকারীদের সঙ্গে চারবার কথা হয়েছে। ওঁদের ভুল তথ্য দিয়ে বিভ্রান্ত করা হচ্ছে। নিয়ম মেনেই এসএসসিতে নিয়োগ হবে। কর্তৃপক্ষকে সেই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অনশনকারীদের অভিযোগ খতিয়ে দেখার জন্য কমিটি তৈরি করা হয়েছে। মণীশ জৈনের নেতৃত্বে ওই কমিটি আগামী দু’দিনের মধ্যে রিপোর্ট জমা করবে। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে ওই রিপোর্ট খতিয়ে দেখা হবে”।

1 মন্তব্য

  1. এসএসসি ক্যান্ডিডেট দের দীর্ঘ অনশন প্রমাণ করছে রাজ্য সরকার কতটা নির্মম ও বেআইনি পথ ধরতে পারে।এধরণের নির্মমতা কি গণতন্ত্রের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকার নমুনা, নাকি মা মাটি মানুষের আদর্শ অনুসারী?

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here