বঙ্গে আসছে ঘূর্ণিঝড়? এত তাড়াতাড়ি কিছু বলার সময় এখনও হয়নি

0

কলকাতা: পশ্চিমবঙ্গের সংবাদমাধ্যমের একাংশের এই এক দোষ! আতংক কী ভাবে তৈরি করতে হয়, সে ব্যাপারে সিদ্ধহস্ত তারা। বঙ্গোপসাগরে কিছু একটা তৈরি হবে, এই আন্দাজ পেয়েই প্রচার শুরু হয়ে গেল ঘূর্ণিঝড়ের। বলে দেওয়া হল আগামী সপ্তাহেই নাকি পশ্চিমবঙ্গের উপকূলে আছড়ে পড়তে চলেছে ঘূর্ণিঝড়, যার নাম হবে ‘সিত্রাং!’

এ যেন এক শিশু জন্ম নেওয়ার আগেই ঠিক করে দেওয়া হচ্ছে যে শিশুটি বড়ো হয়ে কী হবে। এমনিতেও যে ভাবে সংবাদমাধ্যমে আসন্ন ওই নিম্নচাপটির ব্যাপারে রিপোর্ট করা হয়েছে তা দেখে মনে হচ্ছে যে আবহাওয়া সংক্রান্ত খবর করতে তারা কোনো ভাবেই পারদর্শী নয়।

যাই হোক, এ বার মূল কথায় আসা যাক। দক্ষিণ পূর্ব বঙ্গোপসাগরে একটা নিম্নচাপ তৈরি হবে আজ-কালের মধ্যেই। তবে সে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে কি না, ঘূর্ণিঝড় হলে তা পশ্চিমবঙ্গ উপকূলে আছড়ে পড়বে কি না তা বলার সময় এখনও আসেনি। ঘূর্ণিঝড় পশ্চিমবঙ্গ উপকূলে আসবে না এটাও যেমন আমরা বলছি না, তেমনই এটাও বলছি না ভয়াবহ কিছু ঘটতে চলেছে।

আসলে বর্তমানে আবহাওয়ার চরিত্র এতটাই খামখেয়ালি যে দু’দিন পরে কী ধরনের আবহাওয়া থাকবে তার পূর্বাভাস দেওয়াই দুষ্কর। এ ক্ষেত্রে তো সাত-আট দিন পরের ঘটনার কথা বলা হচ্ছে। তাই আগাম কিছু এখনই বলা যাবে না।

আবহাওয়া সংক্রান্ত একটি জনপ্রিয় ওয়েবসাইট (Windy.Com) দেখে সব কিছুই আন্দাজ করে নেওয়া সম্ভব হয়। আমাদের ধারণা মঙ্গলবার রাজ্য জুড়ে ঘূর্ণিঝড়ের যে আতংকটা তৈরি করা হয়েছে তার পেছনে এই উইন্ডিরই কৃতিত্ব রয়েছে। একটা কথা এখানে বলে রাখা ভালো যে উইন্ডি কিন্তু ঘণ্টায় ঘণ্টায় তাদের পূর্বাভাস বদলে দেয়। অর্থাৎ আজ বুধবার সকাল ৮টায় তারা যা দেখাবে, দুপুর ২টোয় সেটা বদলে যেতেই পারে। ফলে দীর্ঘকালীন পূর্বাভাসের ক্ষেত্রে উইন্ডি খুব একটা বিশ্বাসযোগ্য নয়।

আপাতত তা প্রাথমিক ইঙ্গিত, তাতে বঙ্গোপসাগরে তৈরি হতে চলা ওই নিম্নচাপটি ঘূর্ণিঝড় হলেও পশ্চিমবঙ্গে খুব একটা প্রভাব ফেলবে না। তার অভিমুখ মায়ানমারের দিকে থাকার সম্ভাবনাই বেশি মনে হচ্ছে। তবে এটা একদমই প্রাথমিক ইঙ্গিত। যত দিন যাবে, ব্যাপারটা পরিষ্কার হবে।

অতএব, ঘূর্ণিঝড় নিয়ে না ভেবে আসন্ন দোল উৎসবের দিকে মন দিন। পাশাপাশি, প্রচণ্ড গরম পড়তে চলেছে। গরমের সেই দাপট থেকে নিজেদের সুরক্ষিত রাখুন।

আরও পড়তে পারেন

আরও কমল সংক্রমণের হার, টেস্ট প্রচুর বাড়লেও পশ্চিমবঙ্গে সংক্রমণ ৪৫-এর নীচে

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন