ওয়েবডেস্ক: আন্দোলনকারীদের সতর্ক করতে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের দেওয়া বার্তাকে কার্যত উপেক্ষা করলেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য! অবরোধকারী ছাত্রদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া থেকে শুরু করে চিকিৎসার খরচ, সব বিষয়েই স্থির রইলেন নিজের অবস্থানেই।

ছাত্র সংসদ নির্বাচনের দাবিতে মিছিল-পালটা মিছিলে উত্তপ্ত যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়। গত মঙ্গলবার উপাচার্য সুরঞ্জন দাসের গাড়ি ঘিরে বিক্ষোভ এবং ধ্বস্তাধস্তি হয়। জানা গিয়েছে, সে সময় আহত হয়েছেন উপাচার্য। এর পর তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হলে রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী তাঁকে দেখতে হাসপাতালে যান গত বুধবার। সেখানে অভিযুক্তদের চিহ্নিত করতে ভিডিও চাওয়ার কথাও উঠে আসে। শিক্ষামন্ত্রী উপাচার্যকে জানান, অবরোধকারীদের বিরুদ্ধে যথাযোগ্য ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

পর দিনই সুরঞ্জনবাবু বলেন, “যারা আঘাত করেছে, তাদের চিহ্নিত করলেও কোনো আইনি ব্যবস্থা নেব না”।

একই সঙ্গে তিনি বলেন, “নিজের চিকিৎসার জন্য আমি কোনো খরচই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে নেব না”।

তা হলে যে দাবিতে একাংশ পড়ুয়া আন্দোলন করছে, অর্থাৎ ছাত্র সংসদ নির্বাচনের দাবি কি মেনে নেবে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ? এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি জানান, “নির্বাচন নিয়ে কোনো মন্তব্য করব না। কারণ আমার হাত-পা বাঁধা”।

আরও পড়ুন: আসনবণ্টন তালিকা প্রকাশ অখিলেশ-মায়াবতীর, কংগ্রেসের জন্য ক’টা ছাড়া হল?

শিক্ষামন্ত্রী অবশ্য গত বুধবারই জানিয়ে দিয়েছেন, সামনে লোকসভা ভোট। ফলে ভোটের আগে ছাত্র সংসদের নির্বাচন কোনো মতেই করা যাবে না।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here