না খেয়ে দিন কাটছে লকডাউনে, অভুক্ত বাঁদরদের মুখে আহার তুলে দেওয়ার উদ্যোগ তৃণমূল নেতার

0
monkey at sevak road
রবিবাসরীয় মেনুতে বিস্কুট, ফলমূল। নিজস্ব ছবি

নিজস্ব প্রতিনিধি, জলপাইগুড়ি: পর্যটক ও স্থানীয় বাসিন্দাদের দেওয়া ফলমূল, বিস্কুট বা কখনও আনাজ বোঝাই লরি থেকে চুরি করে বা বনের ফলমূল খেয়ে কোনো রকমে দিন চলে যাচ্ছিল তাদের। কিন্তু করোনা লকডাউনের জন্য নেই পর্যটকদের আনাগোনা, ফলে কার্যত অনাহারেই কোনো রকমে দিন কাটাচ্ছে সেবকের বাঁদরেরা।

সিকিম বা ডুয়ার্সে বেড়াতে যাওয়ার সময় দেখা হবেই এই বাঁদরদের সঙ্গে। সেবক রেলব্রিজ পার করতেই রাস্তার দু’পাশে নানা ভঙ্গিমায় বাঁদরের ‘বাঁদরামো’ পর্যটকদের চোখে পড়বেই।

Shyamsundar

কিন্তু এখন প্রায় অনাহারেই কাটছে দিন। তাদের মুখে আহার তুলে দিতে উদ্যোগী হলেন ডাবগ্রাম ফুলবাড়ি বিধানসভা কেন্দ্রের যুব তৃণমূলের সভাপতি গৌতম গোস্বামী। তিনি বলেন, “শিলিগুড়ির কিছু সহৃদয় মানুষ এখানে এসে পাহাড়ের অসহায় প্রাণীদের খাবার দিয়ে যান। সেই খবর জানতে পেরেই আমরা আজ সৃষ্টি ফাউন্ডেশনের তরফে খাবার বিতরণ করলাম। আমরা এ বার থেকে দায়িত্ব ভাগ করে নিয়ে নিয়মিত খাবার দিয়ে যাব”।

রবিবার সেবকের বাঁদরদের খাবারের ব্যবস্থা করলেন তিনি ও তাঁর অনুগামীরা। ফের সেই চেনা ভঙ্গিমায় ফিরল অগুন্তি বাঁদর। ছোটো-বড়ো-মাঝারি সকলেই উদ্যোক্তাদের হাত থেকে খাবার নিয়ে তৃপ্তি করেই পেট ভরাল এ দিন।

আরও পড়তে পারেন: চুরি করাই পেশা এবং নেশা! ধরা পড়ল ইংরেজিতে এমএ পাশ চোর

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন