স্বনির্ভরতার লক্ষে সরকারি ছাগল বিতরণেও কারচুপির অভিযোগ

0

সমীর মাহাত, ঝাড়গ্রাম: লোধা-শবর মহিলাদের স্বনির্ভরতার লক্ষে সরকারি ভাবে ছাগল প্রদানেও কারচুপির অভিযোগ। অ্যাকাউন্টে টাকা দেওয়ার বদলে জোর করে মৃতপ্রায়, রুগ্‌ণ ছাগল দেওয়ার প্রতিবাদে আন্দোলনে নামতে চলে‌ছে জামবনির স্ব-সহায়ক দলের শবর মহিলারা।

এলাকার বিভিন্ন সহায়ক দলের পক্ষ থেকে জেলা শাসককে লিখিত অভিযোগে প্রশাসনিক তদন্তের দাবি জানানো হয়েছে। পুরো ঘটনায় তারা কাঠগড়ায় তুলেছে স্থানীয় ব্লক প্রশাসন কে। জানা গিয়েছে, স্বনির্ভর করার লক্ষে, গত ৭ও ৮ ডিসেম্বর ঝাড়গ্রামের জামবনি ব্লকের লালবাঁধ ও দুবড়া অঞ্চল এলাকার লোধা শবরদের ছাগল প্রদান কর্মসূচি নেওয়া হয়। মহুয়া সংঘ সমিতি সমবায় লিমিটেড এই ছাগল প্রদানের বরাত পায়। দুবড়া এলাকায় ১৪টি স্ব-সহায়ক দলকে ছাগল প্রদানের ব্যবস্থা করা হয়।

অভিযোগ, বাড়ি পৌঁছানোর আগেই মৃতপ্রায় ও রুগ্‌ণ অনেক ছাগল মারা যায়। এই ঘটনা ঘটতে থাকায় ৯টি দল ছাগল না নিয়েই চলে যায়। ‘সাথীহারা’ স্ব-সহায়ক দলের শবর মহিলাদের অভিযোগ, “শনিবার সকালে আমাদের দলকে ৩৫টি ছাগল দেওয়া হয়। তার মধ্যে ৫টি ছাগল রাস্তাতেই মারা যায়। আমাদের তার বাবদ ১৭ হাজার টাকার বিলে সই করিয়ে নেওয়া হয়েছে। আমরা ছাগল নিতে অস্বীকার করি। জোর করে দিয়ে দেওয়া হয়েছে”।

মা বসুন্ধরা দলের মালারানী শবর বলেন, “আমাদের মরা ছাগল দেওয়া হয়েছে, যেগুলি আছে সেগুলিরও যা অবস্থা তাতে মনে হয় মারা যাবে। এই ভাবে আমরা কী করব! নেওয়ার হয় নাও, না হয় বাড়ি চলে যাও, এই ভাবে জোর করে ছাগল দেওয়া হয়েছে। এর জন্য আমাদের দলের অ্যাকাউন্টে ১ লক্ষ টাকা দেওয়ার কথা ছিল। প্রতি দলেই ৪ – ৫টি করে ছাগল মারা গেছে। বাচ্চা ও রুগ্‌ণ ছাগল। যে মূল্যের ছাগল তা দেওয়া হয়নি। এই কারচুপির বিচার আমরা চাই”।

Shyamsundar

“ব্লকে যে সমস্ত দল ছাগল নিয়ে গেছে তাদের প্রতিদিন ৪ – ৫টি করে মরছে। ছাগল উন্নত মানের কিংবা ছাগলে টাকা না দিলে আমরা লোধা শবর সমাজ দীর্ঘ আন্দোলন করব”, বলে জানান পশ্চিমবঙ্গ লোধা শবর সমাজের জামবনি ব্লক সভাপতি প্রেমচাঁদ শবর।

[ আরও পড়ুন: প্রধানমন্ত্রী কিষান তহবিলে সরকারি অনুদান পেতে আধার বাধ্যতামূলক করল কেন্দ্র ]

জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে অভিযোগ খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে বলে সূত্র মতে জানা গিয়েছে।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন