Connect with us

ঝাড়গ্রাম

‘মাস্ক কেনার টাকা না থাকলে, প্রশাসনকে কিনে দিতে হবে’, ঝাড়গ্রামে বললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

ঝাড়গ্রামের প্রশাসনিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “এখানকার মানুষ মাস্ক পরছেন না”।

Published

on

ঝাড়গ্রামের প্রশাসনিক বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

খবর অনলাইন ডেস্ক: বুধবার ঝাড়গ্রামের প্রশাসনিক পর্যালোচনা সভায় করোনাভাইরাস (coronavirus) মোকাবিলায় একগুচ্ছ পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দেওয়ার পাশাপাশি একাধিক প্রকল্পের উদ্বোধন-সহ আর্থিক সহযোগিতার অর্থ তুলে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)।

এ দিন অনুষ্ঠানের শুরুতেই ঝাড়গ্রাম মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল নির্মাণকাজের সূচনা করেন মুখ্যমন্ত্রী।

এর পরই হাতির আক্রমণে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের হাতে চাকরির নিয়োগপত্র তুলে দেন। মাওবাদী হামলায় মৃতের পরিবারের সদস্যদের হাতেও চার লক্ষ টাকার আর্থিক সাহায্য অথবা চাকরির নিয়োগপত্র তুলে দেন তিনি।

Loading videos...

সাঁওতাল অ্যাকাডেমির জন্য এক কোটির টাকার চেক তুলে দেন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হাতে। পাশাপাশি পুরোহিত ভাতার চেকও তুলে দেন।

করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে একের পর এক পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী। ঝাড়গ্রামে কোভিডরোগীর সংখ্যা ধীরে হলেও বাড়তে থাকায় উদ্বেগ প্রকাশ করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “লাগোয়া রাজ্য ঝাড়খণ্ড। সেখান থেকে লরি আসে এই রাজ্যে। তাই ঝাড়গ্রামে বিশেষভাবে সাবধানে থাকা দরকার”।

পাশাপাশি তিনি বলেন, করোনা ঠেকাতে একমাত্র পথ সাবধানতা অবলম্বন করা। এর জন্য প্রশাসনকে সচেতনতামূলক প্রচার বাড়াতে হবে। তিনি বলেন, “এখানকার মানুষ মাস্ক পরছেন না। মাস্ক পরার জন্য সচেতনতার প্রসার করতে হবে। মানুষের হাতে মাস্ক কেনার টাকা না থাকলে প্রশাসনের উদ্যোগে তা কিনে দিতে হবে”।

বিগত কয়েক বছরে ঝাড়গ্রামের একাধিক উন্নয়নমূলক কাজের খতিয়ান পেশ করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, সরকারি প্রকল্পের কাজে বাধা দেবেন না। প্রশাসন থেকে রাজনৈতিক নেতৃত্বকেও তিনি নির্দেশ দিয়েছেন টেন্ডার নিয়ে যেন কোনো গন্ডগোল না হয়। তিনি বলেন, “বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শুরু করে হাসপাতাল, রাস্তাঘাট, পর্যটনের উন্নয়ন, কিষান মান্ডি- কী হয়নি? এই উন্নয়নকে ধরে রাখতে হবে”।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “ঝাড়গ্রামে অনেক কাজ হয়েছে। এর পরেও যাঁরা বড়ো বড়ো কথা বলছেন, তাঁরা আগে নিজেরা একটু কাজ করে দেখান। আমরা প্রায় আট বছরের মধ্যে আমরা অনেক কাজ করেছি। সে সবের সাক্ষী রয়েছেন এলাকার মানুষ। ঝাড়গ্রামে নতুন করে অশান্তির পরিবেশ তৈরি করবেন না”।

Administrative review meeting of Jhargram District | ঝাড়গ্রাম জেলার প্রশাসনিক পর্যালোচনা বৈঠক

Administrative review meeting of Jhargram District | ঝাড়গ্রাম জেলার প্রশাসনিক পর্যালোচনা বৈঠক

Posted by Mamata Banerjee on Tuesday, 6 October 2020

আরও পড়তে পারেন: হাতির হানায় মৃতের পরিবারের সদস্যকে চাকরি, ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ঝাড়গ্রাম

ঢাঙিকুসুমে মাওবাদী-দর্শন সাজানো, জানিয়ে দিল নবান্ন

গোয়েন্দারা জানাচ্ছেন, গত মার্চ থেকে বেশ কয়েকটি ঘটনায় জঙ্গলমহলে ফের মাওবাদীদের নামে হুমকি চিঠি এবং পোস্টার পড়ছে। সেগুলি আসলে মাওবাদীরা করছে, না কি অন্য কেউ, তার তদন্ত শুরু হয়েছে।

Published

on

Dhangikusum
৩ সেপ্টেম্বর খড়গপুরের চার যুবক ঢাঙিকুসুম থেকে ফিরে মাওবাদীদের দেখেছেন বলে দাবি করেছিলেন।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঝাড়গ্রাম জেলার বেলপাহাড়ির ঢাঙিকুসুমে ঝরনা দেখতে গিয়ে মাওবাদীদের খপ্পরে পড়ার যে দাবি খড়গপুরের চার যুবক করেছিলেন, তা  ‘সাজানো’ বলে সাফ জানিয়ে দিল নবান্ন। তবে জঙ্গলমহলে গত কয়েক মাসে পর পর যে ক’টি ঘটনা ঘটেছে, তা হালকা ভাবে দেখছে না প্রশাসন।

উল্লেখ্য, ৩ সেপ্টেম্বর খড়গপুরের চার যুবক ঢাঙিকুসুম থেকে ফিরে মাওবাদীদের দেখেছেন বলে দাবি করেছিলেন। তাঁদের ফোনও কেড়ে নেওয়া হয়েছিল বলে পুলিশকে জানিয়েছিলেন তাঁরা।

পরে পুলিশি জেরার মুখে পড়ে বয়ান বদলে যায় তাঁদের। তাঁরা বলেন, নেশাগ্রস্ত থাকায় তাঁদের এক জনের মোবাইল ফোন ঝরনার জলে ভেসে গিয়েছিল। তখনই তারা মাওবাদী তত্ত্ব সাজিয়ে চার যুবকের ফোন হারিয়ে গিয়েছে বলে থানায় অভিযোগ জানিয়েছিলেন।

Loading videos...

রাজ্যের গোয়েন্দা বিভাগ নবান্নে জানিয়েছে, এখন জঙ্গলমহলে মাওবাদীদের আনাগোনা না-থাকলেও ঝাড়খণ্ড সীমানায় স্কোয়াড আসছে। ধলভূমগড়, গালুডি, ঘাটশিলা এবং পটমদা এলাকায় মাঝে মাঝে মাওবাদীরা আসে। খবর এলেই ঝাড়খণ্ড, ওড়িশা পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়।

গোয়েন্দারা জানাচ্ছেন, গত মার্চ থেকে বেশ কয়েকটি ঘটনায় জঙ্গলমহলে ফের মাওবাদীদের নামে হুমকি চিঠি এবং পোস্টার পড়ছে। সেগুলি আসলে মাওবাদীরা করছে, না কি অন্য কেউ, তার তদন্ত শুরু হয়েছে।

১৫ আগস্ট স্বাধীনতা দিবসের বিরোধিতা করে পোস্টার পড়ে।  গত ৪ সেপ্টেম্বর সিন্দুরিয়ার কাছে হাদরা মোড়ে ২০টি হাতে লেখা পোস্টারে এক ঠিকাদারকে রাস্তা তৈরির কাজ বন্ধ করতে বলে হুমকি দেওয়া হয়। যদিও পুলিশ মনে করছে এর পেছনে মাওবাদীরা নয়, স্থানীয় শত্রুতাও অন্যতম কারণ হতে পারে।

খবরঅনলাইনে আরও পড়ুন

হাওড়া, শিয়ালদহ শাখায় লোকাল ট্রেন চালাতে চেয়ে রাজ্যকে চিঠি রেলের

Continue Reading

ঝাড়গ্রাম

ফের দফায় দফায় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার জেরার মুখে ছত্রধর মাহাতো

শুক্রবারের পর ছত্রধরকে ফের জেরা শনিবার।

Published

on

Chhatradhar

খবরঅনলাইন ডেস্ক: গত ফেব্রুয়ারিতেই লালগড়ে ফিরেছন ছত্রধর মাহাতো। ইউএপিএ মামলায় হাইকোর্ট তাঁর সাজার মেয়াদ কমানোয় তিনি আমলিয়া গ্রামে ফেরেন। এখন করোনা আবহেই ফের নতুন করে তিনি কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার (NIA) জেরার মুখোমুখি।

১১ বছর আগের দু’টি মামলায় নতুন করে ছত্রধর মাহাতোকে (Chhatradhar Mahato) জেরা করছে এনআইএ। ওই মামলা দু’টিতে তাঁকে জেরা করতে চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন জানায় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। সেই আবেদন মঞ্জুর হলে শুরু হয় জেরা পর্ব।

ফের কী কী মামলায় জেরা?

শুক্রবার একটি মামলায় প্রথম দফার জেরার পর শনিবারও অন্য একটি মামলায় তাঁকে জেরার জন্য নোটিশ ধরানো হয়েছে। গতকাল তাঁকে লালগড়ের ধরমপুর অঞ্চলের শালবনি গ্রামে মাওবাদীদের হাতে সিপিএম কর্মী প্রবীর মাহাতোর খুনের মাম‌লায় জেরা করা হয়। পশ্চিম মেদিনীপুরের শালবনিতে ২০৭ নম্বর কোবরা ব্যাটালিয়নের দফতরে তাঁকে ম্যারাথন জেরা করেন এনআইএর দুই অফিসার।

Loading videos...

গতকাল সকাল সাড়ে ১১টা থেকে বিকেল সাড়ে ৪টে পর্যন্ত টানা পাঁচ ঘণ্টা তাঁকে জেরা করেন এনআইয়ের দুই আধিকারিক। এ দিন সকালে ফের তাঁকে বাঁশতলায় রাজধানী এক্সপ্রেস আটকের মামলায় জেরার কথা জানানো হয়েছে।

এক সময়ে জনসাধারণের কমিটির নেতা ছত্রধর বর্তমানে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক। স্বাভাবিক ভাবেই কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা পুরনো মামলায় নতুন করে তাঁকে জেরা শুরু করতেই “রাজনৈতিক দূরভিসন্ধি” দেখছেন ছত্রধর। তবে তিনি ভীত নন বলেই সাফ জানিয়ে দিয়েছেন।

বছর ১২ আগে!

২০০৮-এর নভেম্বরে পশ্চিম মেদিনীপুরের শালবনিতে তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের (Buddhadeb Bhattacharjee) কনভয় লক্ষ্য করে ল্যান্ডমাইন বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। সেই বিস্ফোরণের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পরের বছর বীনপুরের জঙ্গল থেকে ছত্রধর মাহাতোকে গ্রেফতার করা হয়।

ছ’বছর ধরে শুনানি পর্বের শেষে ২০১৫-র মে মাসে ছত্রধর মাহাতো-সহ অন্যান্যদের দোষী সাব্যস্ত করে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ঘোষণা করে মেদিনীপুর দায়রা আদালত। যাবজ্জীবনের সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ করে ও ধৃতদের মুক্তির দাবি জানিয়ে হাইকোর্টে সওয়াল করেন বর্ষীয়ান আইনজীবী শেখর বসু। সেই আবেদনেরই এ দিন চূড়ান্ত রায় ঘোষণায় সাজা কমানো হয় ছত্রধর মাহাতোর।

গ্রেফতারির সময় তাঁর কাছ থেকে কিছু বইপত্র, লিফলেট, জিলেটিন, অস্ত্র পেয়েছিলেন গোয়েন্দারা। সেই সব তথ্যপ্রমাণ খতিয়ে দেখে ছত্রধর মাহাতোকে অস্ত্র মামলায় ৩ বছর, ইউএপিএ আইনে ১০ বছর এবং রাষ্ট্রদোহিতার অপরাধে ৮ বছর কারাবাসের সাজা শোনান বিচারপতিরা।

বছর ঘুরলেই ভোট!

সামনে রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন। গত লোকসভা ভোটে জঙ্গলমহলের তিন জেলা ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়া এবং বাঁকুড়ায় তৃণমূলের ভোট বাক্সে জোরালো ধাক্কা লাগে। স্বাভাবিক ভাবেই আগামী বিধানসভা ভোটে দলের খোয়া যাওয়া সমর্থন পুনরুদ্ধারে এখন থেকেই ঝাঁপিয়ে পড়তে চাইছে তৃণমূল।

ছত্রধর গ্রামে ফেরার পর থেকেই রাজনৈতিক মহলে একটা কানাঘুষো চলছিল-ই! ছত্রধর মাহাত কি শাসক তৃণমূলের হয়েই ময়দানে নামবেন? জল্পনার অবসান ঘটিয়ে গত জুলাই মাসে তাঁকে তৃণমূলের রাজ্য কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত করেছেন খোদ দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)।

রাজনৈতিক ওয়াকিবহাল মহলের মতে, সামনের ভোটে জঙ্গলমহলে ‘এক্স ফ্যাক্টর’ হয়ে উঠতে পারেন ছত্রধর। তিনি নিজেও দাবি করেছেন, জঙ্গলমহল-সহ গোটা বাংলাতেই ক্ষমতায় ফিরবে তৃণমূল। এই পরিস্থিতিতে পুরনো মামলায় ছত্রধরকে এনআইএর জেরা করার মধ্যে রাজনৈতিক রং খুঁজে পাচ্ছে তারা।

Continue Reading

ঝাড়গ্রাম

চলে গেলেন ‘ফরেস্ট ম্যান অব বেলপাহাড়ি’ মনোরঞ্জন মাহাত

গত ছ’মাস ধরে হৃদরোগে ভুগছিলেন ‘হপন মাঝি’।

Published

on

হপন মাঝি। ছবি: প্রতিবেদক

মৃণাল মাহাত: বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় চলে গেলেন জঙ্গলমহলের বিশিষ্ট লোকসংস্কৃতিবিদ, আঞ্চলিক ইতিহাসকার, সাংবাদিক ডা. মনোরঞ্জন মাহাত। যিনি ‘হপন মাঝি’ নামেই বেশি পরিচিত ছিলেন। নিজের বহুধাবিস্তৃত কাজের নিরিখে জঙ্গলমহলের সংস্কৃতি জগতে একটি পরিচিত নাম।

হপনবাবু গত ছ’মাস ধরে হৃদরোগে ভুগছিলেন। বৃহস্পতিবার অবস্থার অবনতি হওয়ায় বেলপাহাড়ির মুড়ারিগ্রাম থেকে ঝাড়গ্রাম সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল আনার পথে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

তারাফেনী নদী-কেন্দ্রিক প্রাচীন সভ্যতাকে জনমানসে পরিচিতি ঘটানোর ক্ষেত্রে তাঁর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল।
এ ছাড়াও বেলপাহাড়িকে সবুজে মোড়ার জন্য তাঁর উদ্যোগে হাজার হাজার গাছ লাগানো হয়, সে জন্য তিনি ‘ফরেস্ট ম্যান’ হিসেবে পরিচিতি লাভ করেন।

Loading videos...

আঞ্চলিক ইতিহাস ও জঙ্গল মহলের সংস্কৃতি নিয়ে একাধিক বই সম্পাদনাও করেছিলেন তিনি। বিভিন্ন মহলেই সমাদৃত এই ব্যক্তির প্রয়াণে জঙ্গলমহলে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

কী ভাবে ‘ফরেস্ট ম্যান’ হয়ে উঠেছিলেন তিনি?

আরণ্যক পরিবেশের করুণ অবস্থায় বারবার মন কাঁদত তাঁর। অরণ্য রক্ষার একটা তাগিদ অনুভব করতেন মন থেকে। সেই তাড়না থেকেই বেলপাহাড়ির অতীত আরণ্যক অবস্থা ফিরিয়ে আনতে উদ্যোগী হয়েছিলেন তিনি। বিস্তারিত পড়ুন এখানে ক্লিক করে: বেলপাহাড়ির সবুজ ফিরিয়ে দিতে অভিযানে নেমেছেন সেখানকার ‘ফরেস্ট ম্যান’

Continue Reading
Advertisement
ক্রিকেট11 mins ago

প্রথম দুটি টেস্ট থেকে বাদ রোহিত-ইশান্ত, সংশয়ে শেষ দুটি টেস্টে উপস্থিতি নিয়েও

শিক্ষা ও কেরিয়ার31 mins ago

টেট-২০১৪ পাশ যোগ্য প্রার্থীদের শিক্ষকপদে নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি

রাজ্য1 hour ago

“এক দল, এক ভাষা আনতে চাইছে বিজেপি”, কেন্দ্রের শাসক দলকে নিশানা সৌগত রায়ের

Feni Railway Station
দেশ1 hour ago

ফেনী-বিলোনিয়া রেলপথের কাজ শুরু হচ্ছে শিগগিরই, দাউদকান্দি-সোনামুড়া জলপথ খননে হাত লাগাবে বাংলাদেশ

দেশ2 hours ago

দুর্ভাগ্য! ভ্যাকসিন নিয়ে রাজনীতি হচ্ছে, বৈঠকে বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

রাজ্য2 hours ago

টিকাকরণে এক সঙ্গে কাজ করতে প্রস্তুত রাজ্য, প্রধানমন্ত্রীকে জানালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

কলকাতা3 hours ago

পাইপ ফেটে বিপত্তি, শনিবার সকাল থেকে রবিবার বিকেল পর্যন্ত বন্ধ টালা থেকে জল সরবরাহ

দেশ3 hours ago

প্রথম পর্যায়ের টিকাকরণে চিহ্নিত এক কোটি সামনের সারির স্বাস্থ্যকর্মী

কেনাকাটা

কেনাকাটা3 days ago

লিভিংরুমকে নতুন করে দেবে এই দ্রব্যগুলি

খবর অনলাইন ডেস্ক: ঘরের একঘেয়েমি কাটাতে ও সৌন্দর্য বাড়াতে ডিজাইনার আলোর জুড়ি মেলা ভার। অ্যামাজন থেকে তেমনই কয়েকটি হাল ফ্যাশনের...

কেনাকাটা6 days ago

কয়েকটি প্রয়োজনীয় জিনিস, দাম একদম নাগালের মধ্যে

খবর অনলাইন ডেস্ক: কাজের সময় হাতের কাছে এই জিনিসগুলি থাকলে অনেক খাটুনি কমে যায়। কাজও অনেক কম সময়ের মধ্যে করে...

কেনাকাটা3 weeks ago

দীপাবলি-ভাইফোঁটাতে উপহার কী দেবেন? দেখতে পারেন এই নতুন আইটেমগুলি

খবর অনলাইন ডেস্ক : সামনেই কালীপুজো, ভাইফোঁটা। প্রিয় জন বা ভাইবোনকে উপহার দিতে হবে। কিন্তু কী দেবেন তা ভেবে পাচ্ছেন...

কেনাকাটা4 weeks ago

দীপাবলিতে ঘর সাজাতে লাইট কিনবেন? রইল ১০টি নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আসছে আলোর উৎসব। কালীপুজো। প্রত্যেকেই নিজের বাড়িকে সুন্দর করে সাজায় নানান রকমের আলো দিয়ে। চাহিদার কথা মাথায় রেখে...

কেনাকাটা2 months ago

মেয়েদের কুর্তার নতুন কালেকশন, দাম ২৯৯ থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক: পুজো উপলক্ষ্যে নতুন নতুন কুর্তির কালেকশন রয়েছে অ্যামাজনে। দাম মোটামুটি নাগালের মধ্যে। তেমনই কয়েকটি রইল এখানে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা2 months ago

‘এরশা’-র আরও ১০টি শাড়ি, পুজো কালেকশন

খবর অনলাইন ডেস্ক : সামনেই পুজো আর পুজোর জন্য নতুন নতুন শাড়ির সম্ভার নিয়ে হাজর রয়েছে এরশা। এরসার শাড়ি পাওয়া...

কেনাকাটা2 months ago

‘এরশা’-র পুজো কালেকশনের ১০টি সেরা শাড়ি

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো কালেকশনে হ্যান্ডলুম শাড়ির সম্ভার রয়েছে ‘এরশা’-র। রইল তাদের বেশ কয়েকটি শাড়ির কালেকশন অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা2 months ago

পুজো কালেকশনের ৮টি ব্যাগ, দাম ২১৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : এই বছরের পুজো মানে শুধুই পুজো নয়। এ হল নিউ নর্মাল পুজো। অর্থাৎ খালি আনন্দ করলে...

কেনাকাটা2 months ago

পছন্দসই নতুন ধরনের গয়নার কালেকশন, দাম ১৪৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজোর সময় পোশাকের সঙ্গে মানানসই গয়না পরতে কার না মন চায়। তার জন্য নতুন গয়না কেনার...

কেনাকাটা2 months ago

নতুন কালেকশনের ১০টি জুতো, ১৯৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো এসে গিয়েছে। কেনাকাটি করে ফেলার এটিই সঠিক সময়। সে জামা হোক বা জুতো। তাই দেরি...

নজরে