‘ঢাকি সমেত বিসর্জন দিয়ে দেব’, প্রাথমিকের প্যানেল বাতিলের হুঁশিয়ারি বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের

0

কলকাতা: ফের প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে হুঁশিয়ারি দিলেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় (Justice Abhijit Ganguly)। ২০১৬-র নিয়োগ প্রক্রিয়ার পুরো প্যানেল বাতিলের হুঁশিয়ারি দিয়ে মঙ্গলবার বললেন ‘ঢাকি সমেত বিসর্জন’ দিয়ে দেবেন তিনি। তবে ‘ঢাকি’ বলতে তিনি কী বোঝাতে চেয়েছেন বা কাকে বোঝাতে চেয়েছেন, সে বিষয়টি পরিষ্কার নয়।

২০১৬-র নিয়োগ প্রক্রিয়ায় চাকরির আবেদন জানিয়ে মামলা করেন ১৪০ জন অপ্রশিক্ষিত প্রার্থী। নম্বর বিভাজনের প্রকাশিত তালিকায় অনেক অপ্রশিক্ষিত প্রার্থীর সুপারিশপত্র পাওয়ার অভিযোগ করেছেন তাঁরা। মামলাকারীদের আরও বেশ কিছু নথি পেশের নির্দেশ দেন বিচারপতি। ১৬ ডিসেম্বর এই মামলার পরবর্তী শুনানি রয়েছে বলে জানানো হয়।

২০১৬-র প্যানেল অনুযায়ী, ৪২ হাজার ৫০০ শিক্ষকের নিয়োগ হয়েছিল প্রাথমিকে। প্রায় ৩২ হাজার অপ্রশিক্ষিত প্রার্থী ২০১৬-র নিয়োগ প্রক্রিয়ায় নিয়োগপত্র পেয়েছেন বলে উল্লেখ করেছেন মামলাকারীরা। এই অভিযোগ শুনে বেজায় ক্ষুব্ধ হন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ‘প্যানেলকে স্বচ্ছ করার যত চেষ্টা করছি তত নতুন নতুন দুর্নীতি বেরোচ্ছে”। এর পরই প্রয়োজনে সেই প্যানেল বাতিল করে দেওয়া হবে বলে মন্তব্য করেন বিচারপতি। হুঁশিয়ারি দিয়ে বিচারপতির মন্তব্য, ‘‘আমি ঢাকি সমেত বিসর্জন দিয়ে দেব।’’

এর পরই জল্পনা ‘ঢাকি সমেত বিসর্জন’ বলতে কী বোঝাতে চাইছেন বিচারপতি। তবে তার আগেই তিনি জানিয়ে দিয়েছেন, “যে দিন ২০১৪-র প্রাথমিক টেটের ভিত্তিতে গড়া ২০১৬-র পুরো প্যানেল বাতিল করব সে দিন ঢাকি সমেত বিসর্জনের মানে বলব।”

বিচারপতির আরও সংযোজন, “মানিক ভট্টাচার্য পর্যন্ত পৌঁছানোর ক্ষমতা নেই বলে চাকরি পায়নি মামলাকারীরা। এই কাজ প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের কোনো কর্মীর হতে পারে না। উপরতলার নির্দেশ না থাকলে এ সব করার সাহস সাধারণ কর্মীদের হয় না।”

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন