dengue

ওয়েবডেস্ক: বর্ষা সক্রিয় হয়ে উঠেছে রাজ্যে। ফের মাথাচাড়া দিতে পারে ডেঙ্গিও। এই আবহে মশার বংশবৃদ্ধি রুখতে বিশেষ পদক্ষেপ করেছে কলকাতা পুরসভা। আপনার বাড়িতে বা বাণিজ্যিক স্থানে যদি জমা জল নজরে আসে পুরসভার বা যদি ময়লা জমে থাকতে দেখা যায়, তা হলে এক লক্ষ টাকা পর্যন্ত জরিমানা করতে পারে পুরসভা।

মাস তিনেক আগে এই এক লক্ষ টাকার জরিমানা সংক্রান্ত একটি বিল পাশ করে বিধানসভা। সেই আইনকে হাতিয়ার করেই রবিবার ১ জুলাই থেকে বিশেষ অভিযানে নামছে তারা। স্বাস্থ্য এবং জঞ্জাল দফতরের আধিকারিকদের নিয়ে একটি বিশেষ দল গঠিত হয়েছে। রবিবার থেকে বিভিন্ন গৃহস্থ বাড়ি, অফিস, বাণিজ্যিক জায়গায় অভিযান চালাবে তারা। সেখানে যদি জমা জলে মশার আঁতুড়ঘরের সন্ধান পাওয়া যায় তা হলে আপনার বিপদ।

শুক্রবার এই ব্যাপারে বৈঠক করেন মেয়র পারিষদ স্বাস্থ্য অতীন ঘোষ এবং মেয়র পারিষদ জঞ্জাল দেবব্রত মজুমদার। তবে প্রথমেই এক লক্ষ টাকা জরিমানা করা হবে না। আপনার বাড়িতে যদি মশার আঁতুড়ঘর দেখতে পায় পুরসভা তা হলে আপনাকে এক সপ্তাহ সময় দেওয়া হবে। এই সময়ের মধ্যে আপনি ভুল শুধরে নেবেন। না হলে জরিমানা আপনার হবেই। গত বছর যে জায়গায় সব থেকে বেশি ডেঙ্গির বাড়বাড়ন্ত হয়েছিল সে দিকেই প্রথমে নজর দেওয়া হবে।

স্বাস্থ্য দফতরের এক আধিকারিক বলেন, “গত বছর দমদম, কাশীপুর, মানিকতলা, চিত্তরঞ্জন অ্যাভিনিউ, এমজি রোড, ভবানীপুর, বেহালা, গলফ গ্রিন, যাদবপুর এবং বাইপাস সংলগ্ন এলাকায় এডিস ইজিপ্টাই মশার আঁতুড়ঘর নজরে পড়েছিল। বিভিন্ন হাসপাতালেও জমা জল নজরে এসেছিল।” আইন পরিবর্তন করা হয়নি বলে তখন শুধুমাত্র ৫,০০০ টাকা জরিমানা করেছিল পুরসভা। কিন্তু ওই আধিকারিকের মতে, এই জরিমানায় কেউ খুব একটা গুরুত্ব দেয়নি। তাই এ বার শাস্তি আরও কঠোর হচ্ছে।

তার পরেই জরিমানার অঙ্কটিকে বাড়িয়ে এক লক্ষ টাকায় নিয়ে যায় পুরসভা। সুতরাং সাবধান, পুরসভার শাস্তি থেকে যদি বাঁচতে চান তা হলে বাড়িতে মশার আঁতুড়ঘর তৈরি হতে দেবেন না।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here