kolkata temperature falls
প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ডিসেম্বর মাস শুরু হতে চলেছে, অথচ এখনও শীতের দেখা নেই। বৃহস্পতিবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হল ১৯.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বুধবারের থেকে তাপমাত্রা বেড়ে গেল এক ডিগ্রি। অথচ গত বছর এই দিনেই পারদ নেমেছিল ১৪.৬ ডিগ্রিতে।

তা হলে এ বার কি শীত কম পড়বে?

না, এখনই সে রকম কোনো আশঙ্কার কারণ নেই বলেই জানিয়ে দিয়েছেন আবহাওয়া বিশেষজ্ঞরা। বরং শনিবার থেকে তাপমাত্রা ক্রমশ কমতে শুরু করবে, এমন আশ্বাস দেওয়া হয়েছে।

মেঘাচ্ছন্ন আকাশ নিয়ে কলকাতা এবং দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন অঞ্চলে শুরু হয়েছে শুক্রবার। তবে শুক্রবার সকাল থেকে নয়, বৃহস্পতিবার রাত থেকেই দক্ষিণবঙ্গের বায়ুমণ্ডলে মেঘ ঢুকতে শুরু করে। এর প্রভাবেই শুক্রবার সকালে তাপমাত্রা বেশি কমতে পারেনি।

বৃহস্পতিবারের পরে, এ দিনও তাপমাত্রার নিরিখে পশ্চিমাঞ্চলকে পেছনে ফেলে দিল, কলকাতা এবং তার সন্নিহিত জেলাগুলি। এ দিন কলকাতায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৯.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং বাঁকুড়ার ছিল ১৯.৭। দিঘা এবং আসানসোলে তাপমাত্রা ছিল যথাক্রমে ১৬.২ এবং ১৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

কী কারণে আবহাওয়ার এ হেন আচরণ?

এর জন্য ঝাড়খণ্ডের ওপরে দুর্বল একটি ঘূর্ণাবর্ত এবং একের পর এক পশ্চিমী ঝঞ্ঝাকে দায়ী করেছে বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা ওয়েদার আল্টিমা। সংস্থার কর্ণধার রবীন্দ্র গোয়েঙ্কা বলেন, “এই ঘূর্ণাবর্তটি বঙ্গোপসাগর থেকে জলীয় বাষ্প টেনে আনছে। অন্য দিকে পশ্চিমী ঝঞ্ঝার ফলে বন্ধ হয়ে গিয়েছে উত্তুরে হাওয়াও। এর প্রভাবেই দক্ষিণবঙ্গের আকাশ মেঘাচ্ছন্ন।” বৃষ্টির সম্ভাবনা না থাকলেও, শুক্রবার সারা দিনই আকাশ মেঘলা থাকবে বলে জানিয়েছে ওয়েদার আল্টিমা।

আরও পড়ুন কুয়াশায় ট্রেন-বিলম্ব রুখতে নতুন পরিকল্পনা রেলের, কিন্তু সমস্যা মিটবে কি?

তবে এ দিন সন্ধ্যা থেকে আবহাওয়া পরিষ্কার হয়ে যেতে পারে বলে জানানো হয়েছে। ফলে রাত থেকেই শীত শীত অনুভূতি বাড়বে বলে মনে করা হচ্ছে। শনিবার থেকে কলকাতার পারদ ১৫-১৬ ডিগ্রির কাছাকাছি নেমে যাবে বলে আশ্বাস দিয়েছে ওয়েদার আল্টিমা।

অর্থাৎ, ডিসেম্বরের শুরু থেকেই ‘শীত’ পড়বে দক্ষিণবঙ্গে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here