Connect with us

রাজ্য

রাজ্যে ক্রমশ কমছে সংক্রমণ, অনিশ্চিত ভবিষ্যতের দিকে তাকিয়ে কোভিড ওয়ারিয়র্স ক্লাব-এর সদস্যরা

“হাসপাতাল থেকে চিঠি পেয়েছি। ওরা জানিয়েছে আমাকে আর দরকার নেই।”

Published

on

প্রতীকী ছবি, ইউটিউব থেকে সংগৃহীত।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: স্বস্তি বাড়িয়ে রাজ্যে ক্রমশ কমছে কোভিডের সংক্রমণ। সংক্রমিতের সংখ্যা কমার পাশাপাশি, রোজই কমছে সংক্রমণের হারও। এখন রাজ্যে প্রতি একশো টেস্টে ১ জনের রিপোর্ট পজিটিভ হচ্ছে। পরিস্থিতির উন্নতি হওয়ায় হাসপাতালগুলিতে কোভিডের জন্য নির্ধারিত বেডের সংখ্যাও কমিয়ে দেওয়া হয়েছে।

চিত্রটা বাংলার সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষের কাছে চরম স্বস্তির। কিন্তু এমনও কিছু মানুষ রয়েছেন, যাঁরা হতাশ। তাঁদের ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত।

Loading videos...

১৯ বছর বয়সি আলমগির শেখ রাজ্যে সরকার গঠিত কোভিড ওয়ারিয়র্স ক্লাব-এর সদস্য ছিলেন। কোভিডজয়ী হওয়ার পর গত জুনে যোগ দিয়েছিলেন এই ক্লাবে। রাজ্যের বিভিন্ন হাসপাতালে কোভিডরোগীদের পরিষেবা দিতেন এই ক্লাবের সদস্যরা। কিন্তু সংক্রমণ কমতে থাকায় অনেক হাসপাতালই এখন ক্লাবের সদস্যদের পরিষেবা নিতে চাইছে না।

হিন্দুস্তান টাইমসকে শেখ বলেন, “হাসপাতাল থেকে চিঠি পেয়েছি। ওরা জানিয়েছে আমার পরিষেবা দেওয়ার আর কোনো দরকার নেই। আমাকে স্বাস্থ্য দফতরে রিপোর্ট করতে বলা হয়। স্বাস্থ্য দফতরের আধিকারিকরা আমায় জানিয়ে দেন যে আমার পরিষেবার প্রয়োজন নেই।”

গত বছর ২৯ জুন, এই ক্লাব তৈরির কথা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। করোনাজয়ীদের বিভিন্ন কাজে লাগাতে এই ক্লাবটি তৈরি করা হয়। বহরমপুর থেকে সদস্য সংগ্রহ অভিযান শুরু হয়। গোটা রাজ্য থেকে ৬৮০ জন ছিলেন এই ক্লাবের সদস্য।

“হাসপাতালের কোভিডওয়ার্ডে কাজ করতাম”

শেখ বলেন, “হাসপাতালের কোভিড ওয়ার্ডে টুকটাক কিছু কাজ করতাম। কোনো রোগী শৌচাগারে যেতে চাইলে সাহায্য করতাম, জামাকাপড় পরাতে সাহায্য করতাম, ঠিক ঠিক ওষুধ ঠিক ঠিক সময় দিতাম, এমনকি কোভিডরোগীদের উদ্বুদ্ধ করার জন্য নানা রকম অনুপ্রেরণামূলক কথাও বলতাম। অনেকেই কোভিডরোগীদের কাছে যেতে ভয় পেত, তাই আমরাই এই সব কাজ করতাম।”

গত বছর পুজোর সময়ে রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণ ছিল চার হাজারেরও বেশি। কিন্তু বর্তমানে রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণ চারশোর নীচে চলে এসেছে। গত দু’ দিনে তা ছিল তিনশোরও কম। হাসপাতালে চাপ কমছে রোগীদের। ঠিক সেই কারণেই এই ক্লাবটি ভেঙে দেওয়া হচ্ছে। সদস্যদের বাড়ি চলে যেতে বলা হচ্ছে।

শেখ বলে চলেন, “আমাদের অনেককেই বাড়ি চলে যেতে বলা হয়েছে। রাজ্য সরকার পরিচালিত যে হাসপাতালে আমি ছিলাম, তারা আমায় দুপুরের খাবার দিত। কিন্তু গত দু’ মাসে সেটাও দেওয়া বন্ধ হয়ে যায়। নিজেদের খাবার নিজেরাই কিনতাম। যদিও প্রাতরাশ এবং রাতের খাবার আমাদের সল্টলেক স্টেডিয়ামে দেওয়া হত। এখানেই আমাদের ক্লাবের সদস্যদের রাখা হত।”

এর পাশাপাশি মাসিক ১৫ হাজার টাকা করে দেওয়া হত রাজ্যের তরফে। তবে ডিসেম্বরের পর সেই টাকা আর পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ শেখের। রাজ্যে প্রাথমিক ভাবে পাঁচ লক্ষ ৮০ হাজার জনকে কোভিডের টিকা নেওয়ার জন্য নথিভুক্ত করা হলেও, সেই তালিকায় শেখ-সহ অনেকেই নেই।

এই অনিশ্চিত ভবিষ্যতের দিকে তাকিয়ে থাকা মানুষগুলো রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতরের বিরুদ্ধে বিক্ষোভও দেখান। এই ক্লাবের সদস্যদের অনেকেই অভিবাসী শ্রমিক, যারা অন্য রাজ্য থেকে কাজ হারিয়ে গত বছর মে-জুন মাসে এখানে চলে আসেন।

“ভবিষ্যতে স্বেচ্ছাসেবক পাওয়া যাবে না”

মুর্শিদাবাদের চিকিৎসক ডাঃ অমরেন্দ্র রায়ের মস্তিষ্কপ্রসূত এই ক্লাবটি। তাঁর কথাতেই মুখ্যমন্ত্রী ক্লাব তৈরি করার কথা জানান। ডাঃ রায়ের কথায়, “এই মানুষগুলো জুরুরি অবস্থার সময়ে সরকারকে কী ভাবে সাহায্য করেছিল, সেটা ভাবাই যায় না। এদের জন্য সরকারের কিছু একটা করা উচিত, নইলে ভবিষ্যতে নাগরিক সমাজ থেকে স্বেচ্ছাসেবকদের আর পাওয়া যাবে না।”

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণের হার নেমে এল ১.১৬ শতাংশে

Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

বীরভূম

জেল হেফাজতে টোটোচালকের রহস্য মৃত্যুর তদন্ত এবং পরিবারকে আর্থিক ক্ষতিপূরণের দাবি জোরালো হচ্ছে বীরভূমে

বৃদ্ধ বাবা-মা, স্ত্রী এবং দুই শিশুকন্যাকে নিয়ে টোটো চালিয়ে কোনো রকমের সংসার চলত মৃত যুবকের!

Published

on

খবর অনলাইন ডেস্ক: রামপুরহাটে জেল হেফাজতে মৃত প্রভাত মণ্ডলের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ এবং মৃত্যুরহস্যের তদন্তের দাবিতে জেলা শাসকের দফতরে স্মারকলিপি জমা দিল বিধায়ক মিল্টন রশিদের নেতৃত্বে এক প্রতিনিধি দল।

ঘটনায় প্রকাশ, বীরভূমের তারাপীঠ থানার কড়কড়িয়া গ্রামের বাসিন্দা প্রভাত। গত বছরের ডিসেম্বর মাসের শেষের দিকে মল্লারপুর পুলিশ তাঁকে মাদক সংক্রান্ত মামলায় গ্রেফতার করেছিল। এর পর রামপুরহাট মহকুমা আদালত তাঁর জেল হেফাজতের নির্দেশ দেয়।

Loading videos...

মৃত প্রভাসের পরিবারের দাবি, ১৪ ফেব্রুয়ারি রাতে ফোন করে জানানো হয়, জেলে মৃত্যু হয়েছে তাঁর। কিন্তু কী ভাবে মৃত্যু হল, সে ব্যাপারে কিছু জানানো হয়নি।

জানা গিয়েছে, বৃদ্ধ বাবা-মা, স্ত্রী এবং দুই শিশুকন্যাকে নিয়ে টোটো চালিয়ে কোনো রকমের সংসার চলত প্রভাতের।

বিধায়ক মিল্টন রশিদ বলেন, “তাঁর বাড়িতে এখন খাওয়ার মতো এক কেজি চালও নেই। পশ্চিমবঙ্গ সরকার এবং বীরভূম জেলা প্রশাসনের কাজকর্ম অবাক করার মতোই। এত দিন হয়ে গেল, অথচ কেন্দ্র, রাজ্য সরকারের কোনো প্রতিনিধি মৃতের বাড়িতে গিয়ে তাঁর পরিবারকে সমবেদনা জানালেন না। রামপুরহাট জেলা প্রশাসন মারফত আমি মুখ্যমন্ত্রীর কাছেও আবেদন জানিয়েছিলাম, এই রহস্যজনক মৃত্যুর অবিলম্বে তদন্ত করা হোক। পাশাপাশি মৃতের পরিবারকে যেন আর্থিক ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয়। সরকারের কাছ থেকে কোনো সদুত্তর না পেয়ে আজ বীরভূম জেলাশাসকের কাছে আমরা স্মারকলিপি জমা দিলাম”।

তিনি আরও বলেন, “অন্য মৃত্যুর ক্ষেত্রে জেলা প্রশাসন অথবা রাজনৈতিক নেতারা ক্ষতিপূরণ অথবা টাকাপয়সা নিয়ে পৌঁছে যান। কিন্তু তারাপীঠের এই যুবকের ক্ষেত্রে দেখা গেল না”।

আরও পড়তে পারেন: ‘ভূমিপুত্র’ প্রার্থী চাই, প্রকাশ্যে বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব

Continue Reading

উঃ ২৪ পরগনা

সিবিআই, ইডি নিয়ে আরও আক্রমণাত্মক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়

“আমি বলছি, সিবিআই, ইডি, আয়কর… আরও যারা যারা আছে, আমার পিছনে লাগান”, ঠাকুরনগরের সভায় বললেন অভিষেক।

Published

on

ঠাকুরনগরে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়

খবর অনলাইন ডেস্ক: স্ত্রী রুজিরাকে গত রবিবার সিবিআই নোটিশ দেওয়ার পরই হুঙ্কার ছেড়েছিলেন তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার উত্তর ২৪ পরগনার ঠাকুরনগরের সভায় সিবিআই, ইডি, আয়কর নিয়ে আরও আক্রমণাত্মক হয়ে উঠলেন তিনি।

নিশানা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে

কয়েক দিন আগে ঠাকুরনগরে এসে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেছিলেন, “করোনা টিকাকরণের কাজ শেষ হলেও মতুয়াদের নাগরিকত্ব দেওয়া হবে”।

Loading videos...

সেই প্রসঙ্গ টেনেই অভিষেক এ দিন বলেন, “১৩০ কোটি মানুষের ভ্যাকসিন পেতে ৯ থেকে ১০ বছর সময় লাগবে। তার পর না কি নাগরিকত্ব! আরে তোমরা কি নাগরিকত্ব দেবে? আপনাদের নাগরিকত্বের প্রমাণ আছে তো? আপনাদের ভোটার কার্ড, আধার কার্ড নেই? যে ভোটার কার্ড নিয়ে আপনারা ভোট দিয়েছেন, যাঁদের ভোট নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচন হয়েছে, তাঁরাই নাকি অবৈধ! আপনারা যদি অবৈধ হন, তা হলে নরেন্দ্র মোদী অবৈধ, অমিত শাহ অবৈধ, রাজনাথ সিংহ অবৈধ”!

‘জয় বাংলা’ বনাম ‘সোনার বাংলা’

ইদানীং বিজেপির সোনার বাংলা এবং তৃণমূলের জয় বাংলা স্লোগানকে কেন্দ্র করে তরজা তুঙ্গে।

অভিষেক বলেন, “আমরা ‘জয় বাংলা’ বললে বাংলাদেশি, আর তোমরা বলছ ‘সোনার বাংলা’! আপনারা বলুন তো ‘সোনার বাংলা’ কোথাকার? ‘সোনার বাংলা’ও বাংলাদেশি। গলা কেটে ফেললেও ‘জয় বাংলা’ বলব। কেন তোমরা যে ‘সোনার বাংলা’ করবে বলছ, সেটা কোথাকার স্লোগান? সোনার বাংলা করতে চাইছ? তা হলে সোনার উত্তরপ্রদেশ হয়নি কেন? সোনার মধ্যপ্রদেশ হয়নি কেন? সোনার গুজরাত হয়নি কেন”?

সিবিআই, ইডি ও আয়কর

ভোটের আগে বিজেপির বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় সংস্থা দিয়ে দলীয় নেতা-কর্মীদের ভয় দেখানোর অভিযোগ তুলেছে তৃণমূল। কয়লাপাচার কাণ্ডে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী রুজিরাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে সিবিআই। রবিবার সেই নোটিশ প্রসঙ্গে টুইটারে হুঙ্কার ছেড়ে যুব তৃণমূল সভাপতি বলেছিলেন, “আজ (রবিবার) বেলা ২টোর সময় আমার স্ত্রীর নামে একটি নোটিশ দিয়েছে সিবিআই। দেশের আইনের উপর আমার পূর্ণ বিশ্বাস রয়েছে। তারা যদি মনে করে, আমাদের ভয় দেখাবে, তা হলে তারা ভুল করছে। আমরা কখনও মাথা নত করি না”।

এ দিন তিনি সুর চড়িয়ে বলেন, “আমার পিছনে সিবিআই লেলিয়ে দিয়েছে। আমি বলছি, সিবিআই, ইডি, আয়কর লাগিয়ে আমাকে ভয় দেখিয়ে দমাতে পারবেন না, যাকে খুশি পাঠান। কিন্তু মাথা নত করব না। জেনে রাখুন আমার গলা কেটে দিলেও একটা কথাই বেরোবে, ‘জয় বাংলা”।

আরও পড়তে পারেন: ‘ভূমিপুত্র’ প্রার্থী চাই, প্রকাশ্যে বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব

Continue Reading

দঃ ২৪ পরগনা

‘ভূমিপুত্র’ প্রার্থী চাই, প্রকাশ্যে বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব

ভোটের নির্ঘণ্ট ঘোষণার আগেই বারুইপুর, সোনারপুর, ক্যানিংয়েরর পর এ বার কুলতলিতে বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে চলে এল।

Published

on

পড়েছে ব্যানার। ছবি: প্রতিবেদক

উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়, কুলতলি: বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব এ বার প্রকাশ্যে। কুলতলিতে ‘ভূমিপুত্র’কে প্রার্থী দাবি করে পড়ল ব্যানার। আর এই নিয়েই রাজনৈতিক তরজা তুঙ্গে।

বিধানসভা ভোট দোরগোড়ায়। তার আগেই দক্ষিণ ২৪ পরগনার বারুইপুর, সোনারপুর, ক্যানিংয়েরর পর এ বার কুলতলিতে বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে চলে এল। কুলতলির জামতলা, মৈপীঠ, বৈকুণ্ঠপুর, জালাবেড়িয়া-সহ গোপালগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় ব্যানার ঝুলিয়ে দাবি করা হয়েছে কুলতলি বিধানসভায় ভূমিপুত্রকে যেন প্রার্থী করা হয়।

Loading videos...

ব্যানারে ‘কুলতলি বিজেপি পরিবারের সদস্য’দের থেকে এই কথা জানানো হচ্ছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে । এর জেরে নিজেদের ঘর গোছানোর আগে কার্যত অস্বস্তিতে পড়ে গিয়েছে  দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা পূর্বের বিজেপি নেতৃত্ব।

এ ব্যাপারে স্থানীয় বিজেপি কর্মীরা বলেন, কুলতলিতে পুরানো বিজেপি কর্মী উত্তম হালদার নয়তো জয়নগর লোকসভার প্রাক্তন বিজেপি প্রার্থী ডা. অশোক কাণ্ডারিকে যেন প্রার্থী করা হয়। দলবদলুদের প্রার্থী করা হলে অনেকেই বঞ্চিত হবেন।

কী বলছে রাজনৈতিক দলগুলি

যদিও নিজেদের গোষ্ঠীদন্ধের কথা অস্বীকার করেই জেলা বিজেপি সভাপতি সুনীপ দাস বলেন, “দলে কোনো গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব নেই। ভুল প্রচার করে বিভ্রান্ত করা হচ্ছে”।

এই প্রসঙ্গে কুলতলি যুব তৃণমূলের সভাপতি গণেশ মণ্ডল বলেন, নিজেদের মধ্যেই এত গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব যে প্রার্থীপদ নিয়েই নির্বাচনের আগে কোন্দল শুরু হয়ে গেছে বিজেপিতে।

মঙ্গলবার কুলতলির জালাবেড়িয়ার শুভেন্দু অধিকারীর জনসভাতে বাইরের জায়গা থেকে লোক এনে জমায়েতের চেষ্টা করা হয়েছে বলে অভিযোগ কুলতলি যুব তৃণমূল সভাপতির।

আরও পড়তে পারেন: বিজেপিতে যোগ দিলেন টলিউড অভিনেত্রী পায়েল সরকার

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
বীরভূম21 mins ago

জেল হেফাজতে টোটোচালকের রহস্য মৃত্যুর তদন্ত এবং পরিবারকে আর্থিক ক্ষতিপূরণের দাবি জোরালো হচ্ছে বীরভূমে

বিনোদন30 mins ago

জন্মদিনে ফিরে দেখা দিব্যা ভারতীকে

উঃ ২৪ পরগনা1 hour ago

সিবিআই, ইডি নিয়ে আরও আক্রমণাত্মক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়

ম্যানহোলে শ্রমিকের মৃত্যু
কলকাতা1 hour ago

শুধু দড়ি বেঁধে ম্যানহোলের কাজ করতে নেমে কুঁদঘাটে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা, মৃত ৪ শ্রমিক

দঃ ২৪ পরগনা1 hour ago

‘ভূমিপুত্র’ প্রার্থী চাই, প্রকাশ্যে বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব

ক্রিকেট2 hours ago

জো রুটের পাঁচ উইকেট, ভয়াবহ ব্যাটিং ভরাডুবি ভারতের

শিল্প-বাণিজ্য3 hours ago

ব্যয় বেড়েছে পরিবহণে, এক ধাক্কায় অনেকটাই বাড়ছে প্রয়োজনীয় সামগ্রীর দাম

প্রযুক্তি4 hours ago

সোশ্যাল, ডিজিটাল মিডিয়া নিয়ন্ত্রণে কড়া পদক্ষেপ কেন্দ্রের

LPG
প্রযুক্তি21 hours ago

রান্নার গ্যাসের ভরতুকির টাকা অ্যাকাউন্টে ঢুকেছে কি না, কী ভাবে দেখবেন

প্রযুক্তি2 days ago

এ ভাবেই তৈরি করুন সদ্যোজাত শিশুর আধার কার্ড, জানুন কী কী লাগবে

ফুটবল3 days ago

দশ জনে খেলা হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে পিছিয়ে থেকেও শেষ মুহূর্তের গোলে মান বাঁচাল এটিকে মোহনবাগান

রাজ্য2 days ago

দেড় ঘণ্টা পর অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়ি ছাড়লেন সিবিআই আধিকারিকরা

ফুটবল2 days ago

কোনো রকমে হার বাঁচানো এটিকে মোহনবাগানের খেলায় বেজায় ক্ষুব্ধ আন্তোনিও লোপেজ আবাস

দেশ2 days ago

প্রতিষ্ঠান-বিরোধিতার হাওয়া নেই, কেরলে মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে এখনও জনপ্রিয় পিনারাই বিজয়ন

উঃ ২৪ পরগনা2 days ago

নিত্যানন্দের আবির্ভাবতিথি উপলক্ষ্যে মহোৎসব খড়দহে, ৭ মার্চ ১০০ মহিলা খোলবাদক নিয়ে নগরপরিক্রমা

ক্রিকেট2 days ago

অমদাবাদ টেস্টের প্রথম একাদশে চমকপ্রদ পরিবর্তন করবে ভারত? জোর জল্পনা

কেনাকাটা

কেনাকাটা3 weeks ago

সরস্বতী পুজোর পোশাক, ছোটোদের জন্য কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সরস্বতী পুজোয় প্রায় সব ছোটো ছেলেমেয়েই হলুদ লাল ও অন্যান্য রঙের শাড়ি, পাঞ্জাবিতে সেজে ওঠে। তাই ছোটোদের জন্য...

কেনাকাটা3 weeks ago

সরস্বতী পুজো স্পেশাল হলুদ শাড়ির নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই সরস্বতী পুজো। এই দিন বয়স নির্বিশেষে সবাই হলুদ রঙের পোশাকের প্রতি বেশি আকর্ষিত হয়। তাই হলুদ রঙের...

কেনাকাটা1 month ago

বাসন্তী রঙের পোশাক খুঁজছেন?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই আসছে সরস্বতী পুজো। সেই দিন হলুদ বা বাসন্তী রঙের পোশাক পরার একটা চল রয়েছে অনেকের মধ্যেই। ওই...

কেনাকাটা1 month ago

ঘরদোরের মেকওভার করতে চান? এগুলি খুবই উপযুক্ত

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘরদোর সব একঘেয়ে লাগছে? মেকওভার করুন সাধ্যের মধ্যে। নাগালের মধ্যে থাকা কয়েকটি আইটেম রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার...

কেনাকাটা1 month ago

সিলিকন প্রোডাক্ট রোজের ব্যবহারের জন্য খুবই সুবিধেজনক

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যপ্রয়োজনীয় বিভিন্ন সামগ্রী এখন সিলিকনের। এগুলির ব্যবহার যেমন সুবিধের তেমনই পরিষ্কার করাও সহজ। তেমনই কয়েকটি কাজের সামগ্রীর খোঁজ...

কেনাকাটা1 month ago

আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজ রইল আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার সময় যে দাম ছিল...

কেনাকাটা1 month ago

রান্নাঘরের এই সামগ্রীগুলি কি আপনার সংগ্রহে আছে?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরে বাসনপত্রের এমন অনেক সুবিধেজনক কালেকশন আছে যেগুলি থাকলে কাজ অনেক সহজ হয়ে যেতে পারে। এমনকি দেখতেও সুন্দর।...

কেনাকাটা1 month ago

৫০% পর্যন্ত ছাড় রয়েছে এই প্যান্ট্রি আইটেমগুলিতে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: দৈনন্দিন জীবনের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসগুলির মধ্যে বেশ কিছু এখন পাওয়া যাচ্ছে প্রায় ৫০% বা তার বেশি ছাড়ে। তার মধ্যে...

কেনাকাটা1 month ago

ঘরের জন্য কয়েকটি খুবই প্রয়োজনীয় সামগ্রী

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যদিনের প্রয়োজনীয় ও সুবিধাজনক বেশ কয়েকটি সামগ্রীর খোঁজ রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদনটি লেখার সময় যে দাম ছিল তা-ই...

কেনাকাটা1 month ago

৯৯ টাকার মধ্যে ব্র্যান্ডেড মেকআপের সামগ্রী

খবর অনলাইন ডেস্ক : ব্র্যান্ডেড সামগ্রী যদি নাগালের মধ্যে এসে যায় তা হলে তো কোনো কথাই নেই। তেমনই বেশ কিছু...

নজরে