Kolkata High Court

কলকাতা: হাইকোর্টে রথযাত্রা মামলার দ্বিতীয়ার্ধের শুনানিতে নয়া মোড়। শুক্রবার বিচারপতি বিশ্বনাথ সমাদ্দারের ডিভিশন বেঞ্চ রাজ্য সরকারের উদ্দেশ্য ছুড়ে দিল একাধিক প্রশ্ন।

এ দিন ডিভিশন বেঞ্চের প্রথমার্ধের শুনানিতে বিজেপির আইনজীবীকে বিচারপতি প্রশ্ন করেন, গত ২৯ অক্টোবর থেকে তাঁরা কর্মসূচির অনুমতি চেয়ে একাধিক আবেদন প্রশাসনের কাছে জমা করেছেন। কিন্তু তার এক-একটির বক্তব্য এক-এক রকম। কেন এই পার্থক্য?

দ্বিতীয়ার্ধে ডিভিশন বেঞ্চ রাজ্যের অ্যাডভোকেট জেনারেল কিশোর দত্তের উদ্দেশে বলে, গত ২৯ অক্টোবর মিছিলের অনুমতি চেয়ে আবেদন করা হয়েছিল। এক মাস অতিক্রান্ত হয়ে গেলেও কেন ব্যবস্থা নিল না রাজ্য?

আপডেট পড়ুন: বিজেপির রথযাত্রা: সিঙ্গল বেঞ্চের স্থগিতাদেশ বাতিল ডিভিশন বেঞ্চে, নয়া নির্দেশ

এখানেই থেমে না থেকে বিচারপতি বলেন, অকারণে মিছিল আটকাতে পারে না প্রশাসন। অনেকটা সময় পাওয়া গিয়েছিল, ওই সময় মিছিলের জন্য কিছু করা হয়নি কেন?

এজির উদ্দেশে স্পষ্টতই আদালত বলেন, রাজ্য সরকারের এহেন আচরণ গ্রহণযোগ্য নয়। রং দেখে কোনো ব্যবস্থা প্রশাসনের নেওয়া উচিত নয়। কেন মিছিলের অনুমতি দেওয়া হল না, তার জবাব দেওয়ার জন্যও অনেকটা সময় হাতে পেয়েছিল প্রশাসন। তা হলে কেন দেওয়া হল না?

তবে হাইকোর্টের রায়ে কী হতে চলেছে, তা জানা না গেলেও বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ এ দিন দিল্লিতে সাংবাদিকদের সামনে দাবি করেছেন, পশ্চিমবঙ্গে রথযাত্রা হচ্ছেই। এ দিন তিনি কোচবিহারে পূর্বঘোষিত রথযাত্রার সূচনা অনুষ্ঠানে যোগ দিতে না পারলেও আগামী শনিবার যে কলকাতায় আসছেন, সে কথাও জানিয়েছেন।