মুকুল রায়। প্রতীকী ছবি

কলকাতা: মুকুল রায়ের বিধায়ক পদ খারিজের দাবির প্রেক্ষিতে যে সিদ্ধান্ত পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভার স্পিকার নিয়েছিলেন, তা পুনর্বিবেচনা করতে বলল কলকাতা হাইকোর্ট। প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তব এবং রাজর্ষি ভরদ্বাজের ডিভিশন বেঞ্চ সোমবার এই রায় দিয়েছে।

ফলে, স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপির টিকিটে নির্বাচিত হয়ে তৃণমূলে যোগ দেওয়া মুকুলের বিধায়ক পদ বহাল রাখার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন, হাইকোর্টের সোমবারের রায়ে তা কার্যত খারিজ হয়ে গেল বলে আবেদনকারী পক্ষের দাবি।

আবেদনকারী পক্ষের আইনজীবী বিল্বদল ভট্টাচার্য জানিয়েছেন, গত বছরের ১১ জুন যে সাংবাদিক বৈঠকে বিজেপি বিধায়ক মুকুল তৃণমূলে যোগ দিয়েছিলেন, সেই সাংবাদিক বৈঠককে ‘প্রমাণ’ হিসেবে ধরে স্পিকারকে সিদ্ধান্ত নিতে বলেছে দুই বিচারপতির বেঞ্চ। আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানাতে বলা হয়েছে।

মুকুলের বিধায়ক পদ খারিজের দাবি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে মামলা করেছিলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। অন্য দিকে, বিজেপি বিধায়ক অম্বিকা রায় পিএসি চেয়ারম্যান পদ খারিজের দাবি নিয়ে শীর্ষ আদালতে মামলা করেন। গত মাসে বিচারপতি নাগেশ্বর রাও ও বিচারপতি বিআর গভাইয়ের বেঞ্চ নির্দেশ দিয়ে বলে যে এক মাসের মধ্যে মামলা নিষ্পত্তি করতে হবে কলকাতা হাইকোর্টকে।

গত ২১ মার্চ মুকুলের দলত্যাগ বিরোধী আইন মামলার হলফনামায় বিজেপিকে আরও দু’দিন সময় দেয় কলকাতা হাইকোর্ট। গেরুয়া শিবিরের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, বিপক্ষের দেওয়া হলফনামা তাদের কাছে দেরি করে পৌঁছেছে। ফলে জবাবি হলফনামা দিতে আরও দু’দিন সময় দিতে হবে।

আরও পড়তে পারেন

গুজরাতে রাসায়নিক কারখানায় বিস্ফোরণে ৬ শ্রমিকের মৃত্যু

ভয়াবহ রোপওয়ে দুর্ঘটনা ঝাড়খণ্ডে, মৃত ২, এখনও আটকে ৪৮ জন

‘চৌকিদার চোর হ্যায়’ স্লোগান তুললেন ইমরান সমর্থকরা, কার বিরুদ্ধে?

উত্তরবঙ্গে নাগাড়ে বৃষ্টি, দক্ষিণে বেয়াল্লিশ ছুঁল পারদ

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন