অনাস্থা ভোট নিয়ে আপাত-স্বস্তিতে সব্যসাচী

0
sabyasachi dutta
প্রতীকী ছবি

কলকাতা: বিধাননগর পুরসভায় অনাস্থা-নোটিশ খারিজ করে দিল কলকাতা পুরসভা। বুধবার হাইকোর্টের বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায় স্পষ্টতই জানিয়ে দেন, আগামী বৃহস্পতিবার বিধাননগর পুরসভায় অনাস্থা ভোট হবে না। অনাস্থা-নোটিশে ত্রুটি ছিল। আগামী দু’দিনের মধ্যে ফের নোটিশ দিতে হবে। কী ত্রুটি?

আদালত প্রশ্ন করে, তলবি সভা শুধুমাত্র ডাকতে পারেন চেয়ারম্যান। ফলে চেয়ারম্যানের বদলে কেন নোটিশ জারি করলেন কমিশনার। এমনকী কমিশনার যে বৈঠকের ডাক দিয়েছিলেন, সেটারও কোনো বৈধতা রইল না আইনগত ত্রুটি-বিচ্যুতির ফলে।

ফলে নিয়ম মেনে নোটিশ না-দেওয়ার কারণেই ওই অনাস্থা নোটিশের কোনো মূল্য নেই। পশ্চিমবঙ্গ পুর আইন মেনেই আগামী দু’দিনের মধ্যে ফের বৈঠক ডেকে নোটিশ দিতে হবে। ওই বৈঠকে যে থাকতে হবে সেই ৩৫ জন কাউন্সিলারকে, যাঁরা প্রথমবার অনাস্থা প্রস্তাবে স্বাক্ষর করেছিলেন।

বিধানগর পুরসভার মেয়র সব্যসাচী দত্তকে পদচ্যূত করতে চেয়ে, নোটিশ পাঠানোর পদ্ধতি নিয়ে হলফনামা তলব করেছিল কলকাতা হাইকোর্ট। পুরসভার চেয়ারপার্সনকে ওই হলফনামা দিতে বলা হয়েছিল। এ দিন মামলার পরবর্তী শুনানিতে ওই হলফনামা জমা পড়ার পরই অনাস্থা-নোটিশ খারিজের নির্দেশ দিলেন বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায়।

এ দিন আদালত বারবার মনে করিয়ে দেয়, ভোটের জন্য বাড়তি সময় পেয়ে যাওয়ায় কোনো রকম ভাবেই ভোটে যাতে অস্বচ্ছতা প্রবেশ না-করে, সেটা নজরে রাখতে হবে। অর্থাৎ, ঘোড়া কেনা-বেচার বিষয়টিকে স্পষ্ট করে প্রতিরোধের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

প্রসঙ্গত, বিধাননগরের মেয়র তথা বিধায়ক সব্যসাচী দত্তের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব নিয়ে আসা হয়েছিল। আগামী বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) ভোট হওয়ার কথা ছিল।

ক্লিক করে পড়ুন সব্যসাচী দত্তের বক্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here