কংগ্রেস সাংসদ-আইনজীবীর একটি যুক্তিতেই বাতিল হল সিঙ্গল বেঞ্চের রথ-মামলার রায়!

0

কলকাতা: বিজেপির রথযাত্রা মামলায় শুক্রবার ফের মোড় ঘুরল হাইকোর্টে। গত বৃহস্পতিবার সিঙ্গল বেঞ্চের রায়ে অনুমতি পাওয়ার পর আগামী শনিবার থেকেই রথযাত্রা শুরু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন বিজেপি নেতৃত্ব। কিন্তু এ দিন ফের স্থগিতাদেশ জারি হওয়ায় আপাতত সেই কর্মসূচিও বাতিল করতে বাধ্য হলেন তাঁরা। ঠিক কী কারণে বাতিল হল সিঙ্গল বেঞ্চের রায়।

এ দিন রাজ্য পুলিশের তরফে আইনজীবী হিসাবে সওয়াল করতে দাঁড়ান কংগ্রেসের রাজ্যসভা সাংসদ-আইনজীবী অভিষেক মনু সিঙ্ঘভি। প্রথমেই বিজেপির আইনজীবী তাঁর সওয়ালের বিরুদ্ধে আপত্তি জানান। কিন্তু আদালতের সম্মতি নিয়ে তিনি সওয়াল করতে উঠে জানান, রাজ্য প্রশাসনের তরফে প্রত্যেক জেলা পুলিশ ও প্রশাসনের তরফে মুখবন্ধ খামে জমা দেওয়া হয়েছিল। সেই রিপোর্ট গত বৃহস্পতিবার সিঙ্গল বেঞ্চের বিচারপতি তপোব্রত চক্রবর্তী খুলেও দেখেননি।

অভিষেকের এমন মন্তব্যের পর প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ জানায়, “বিচারপতি চক্রবর্তীর ওই খাম খুলে সমস্ত রিপোর্ট খতিয়ে দেখা উচিত ছিল। এই রায় তথ্য নির্ভর নয়”। ফলে যেহেতু ওই রিপোর্ট খতিয়ে দেখে রায় দেওয়া হয়নি, এই মামলা পুনরায় সিঙ্গল বেঞ্চের শুনানির জন্য পাঠানো হয়। একই সঙ্গে পুরনো রায়ে স্থগিতাদেশ জারি করে প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ।

আরও পড়ুন: বিজেপির রথে ফের স্থগিতাদেশ হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের

স্বাভাবিক ভাবেই অভিষেক মনু সিঙ্ঘভির একটি যুক্তিকে মান্যতা দিয়েই এই মামলা ফের চলে গেল সিঙ্গল বেঞ্চে। তবে বিজেপির দাবি, ওই রিপোর্টের পুরোটাই কাল্পনিক এবং আশঙ্কা ভিত্তিক। ওই রিপোর্টের কোনো কপি বিজেপিকে দেওয়া হয়নি। যদিও প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ এ দিন স্পষ্টতই জানায়, বিজেপিকে ওই রিপোর্টের কপি দেওয়ার প্রয়োজনীয়তা নেই।

------------------------------------------------
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.