এক ধাক্কায় সাড়ে বারোর নীচে কলকাতার তাপমাত্রা, জম্পেশ শীত গোটা রাজ্য জুড়ে

0
Winter in Bengal

কলকাতা: রবিবার ছিল ১৫ ডিগ্রির ওপরে। সোমবার তা এক ধাক্কায় আড়াই ডিগ্রি কমে গেল। কলকাতার তাপমাত্রা সাড়ে বারো ডিগ্রির নীচে চলে এল সোমবার। সোমবার গোটা পশ্চিমবঙ্গেই জমিয়ে ঠান্ডা পড়েছে। পশ্চিমাঞ্চলের কিছু জায়গায় তাপমাত্রা নেমে গিয়েছে দশ ডিগ্রির নীচে।

কলকাতায় এ দিন সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১২.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এটি স্বাভাবিকের থেকে দু’ডিগ্রি সেলসিয়াস কম। তবে দমদমের তাপমাত্রা (১২.৭ ডিগ্রি) এ দিনও কলকাতার থেকে বেশিই ছিল। যদিও, কলকাতার উপকণ্ঠের ব্যারাকপুরে তাপমাত্রা এ দিন সাড়ে ১১ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে।

দক্ষিণবঙ্গে এ দিন শীতলতম স্থানের তকমা অর্জন করেছে শ্রীনিকেতন। সেখানে তাপমাত্রা নেমে গিয়েছে ৯.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। অন্যদিকে পুরুলিয়া, পানাগড়ের মতো জব্বর শীত পড়ার জায়গাগুলোতে তাপমাত্রা এ দিন ১০-১১ ডিগ্রির আশেপাশেই ঘোরাফেরা করেছে।

উপকূল অঞ্চলেও জমিয়ে ঠান্ডা পড়েছে। দিঘায় এ দিন তাপমাত্রা নেমে গিয়েছে ১১.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। কাঁথিতে তাপমাত্রা ১১ ডিগ্রি এবং ক্যানিংয়ে তাপমাত্রা ছিল ১২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

উত্তরবঙ্গেও জব্বর ঠান্ডা। শিলিগুড়িতে এ দিন তাপমাত্রা নেমে গিয়েছে ৮.১ ডিগ্রিতে। কোচবিহারে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৮.৩ ডিগ্রি। জলপাইগুড়িতে তাপমাত্রা ছিল ৯.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। দার্জিলিংয়ে তাপমাত্রা নেমে গিয়েছে সাড়ে ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। কালিম্পংয়ে ছিল সাড়ে ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসে।

উল্লেখ্য, গোটা রাজ্যের আকাশ এখন একদম পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে। এই সুযোগের হুহু করে উত্তুরে হাওয়া ঢুকছে উত্তর ভারতকে। এর প্রভাবেই ক্রমশ কমছে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। আগামী ৪৮ ঘণ্টায় তাপমাত্রা আরও বেশ কিছুটা কমবে বলে আশা করা যায়।

তবে এই সপ্তাহের শেষে ফের কয়েকদফা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে রাজ্য জুড়ে। ফের হানা দিতে চলেছে একটি পশ্চিমী ঝঞ্ঝা। তার প্রভাবেই হতে পারে বৃষ্টি।

আরও পড়তে পারেন

সোমবারের রীতি মেনেই বাড়ল সংক্রমণের হার, স্বস্তি দিয়ে একদিনে সুস্থ হলেন দেড় লক্ষাধিক, মৃত্যুহার ক্রমশ কমছে

যোগদানের কয়েক মাসের মধ্যেই তৃণমূল ছাড়লেন গোয়ার নেতা, ফিরতে পারেন কংগ্রেসে

‘সংক্রমণ’ ছড়াল উত্তরাখণ্ডেও, রাজ্যের মন্ত্রীকে দল থেকে বহিষ্কার করল বিজেপি

হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত কিংবদন্তি শিল্পী পণ্ডিত বিরজু মহারাজ

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন