মুকুল রায়কে সামনে রেখে শুভেন্দু অধিকারীকে চাপে ফেলে দিলেন কুণাল ঘোষ

    আরও পড়ুন

    খবর অনলাইন ডেস্ক: দলত্যাগ বিরোধী আইন প্রসঙ্গে বিধানসভার বিরোধী দলনেতা এবং বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারীর ‘জ্ঞান’ নিয়েই প্রশ্ন তুলে দিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্য সম্পাদক কুণাল ঘোষ।

    শুভেন্দুর যা জানা উচিত: কুণাল

    [কুণাল ঘোষ]

    মুকুল রায় বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে ফেরার পরই রাজ্যে দলত্যাগ বিরোধী আইন কার্যকরের কড়া হুঁশিয়ারি দেন শুভেন্দু অধিকারী। এ ব্যাপারে তিনি মুকুলের বিধায়কপদ খারিজের আবেদনও জানিয়েছেন। এই প্রসঙ্গেই শুভেন্দুকে এক হাত নিলেন কুণাল ঘোষ। শুক্রবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে কুণাল বলেন, “আমি কিছু দিন আগে দেখছিলাম, দলত্যাগ বিরোধী আইন নিয়ে তিনি (শুভেন্দু) রাজভবনের বারান্দায় ঘোরাঘুরি করছিলেন। ওঁর জানা উচিত, এই আইনটার সঙ্গে রাজভবনের কোনো সম্পর্ক নেই। গোটা বিষয়টাই বিধানসভার স্পিকারের আওতায়”।

    Loading videos...

    দলত্যাগ বিরোধী আইন নিয়ে যদি শুভেন্দু অধিকারীর বিস্তারিত জ্ঞান থাকে, তা হলে ওঁর উচিত, এ দিক- ও দিক না করে বাড়িতে গিয়ে বাবাকে (শিশির অধিকারী) জ্ঞান দেওয়া। কারণ তাঁর বাবা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দয়ায় তৃণমূলের প্রতীকে জিতে লোকসভায় গিয়েছিলেন। আর এখন বিজেপিতে যোগ দিয়ে বসে আছেন। ফলে দলত্যাগ বিরোধী আইনটা আগে তাঁর বাবা লঙ্ঘন করেছেন।

    শুভেন্দুর ৬৪ পাতার পিটিশন

    [শুভেন্দু অধিকারী]
    - Advertisement -

    প্রসঙ্গত, মুকুলের বিধায়কপদ আইনি ভাবে খারিজের হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। তিনি বলেছিলেন, “আমি বিরোধী দলনেতা হিসেবে দায়িত্ব নিয়ে বলছি, পশ্চিমবঙ্গে দলত্যাগ বিরোধী আইন কার্যকর করে দেখাব”। বৃহস্পতিবার, শুভেন্দু বলেন, “মুকুল রায়ের বিধায়কপদ খারিজের দাবিতে সব প্রক্রিয়া শেষ। আজ বিধানসভার রিসিভ সেকশন বন্ধ ছিল। কাল সকাল এগারোটায় ফের বিধানসভায় যাওয়া হবে। কালও রিসিভ সেকশন বন্ধ থাকলে অধ্যক্ষকে ইমেল পাঠানো হবে”। সেই মতোই এ দিন মুকুলের বিধায়কপদ খারিজে ৬৪ পাতার পিটিশন জমা করেছেন শুভেন্দু। এ ব্যাপারে কুণাল বলেন, “এটা তাঁদের ব্যাপার। আমার কিছু বলার নেই”।

    বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্দেশ্যে আবেদন জানানো হয়েছে ওই পিটিশনে। যা জমা পড়েছে বিধানসভার সচিবালয়ে। অবিলম্বে দলত্যাগ বিরোধী আইনে মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে পদক্ষেপের আবেদন জানানো হয়েছে।

    আরও পড়তে পারেন: ভোট-পরবর্তী হিংসার অভিযোগ নিয়ে রাজ্য সরকারকে বিশেষ নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

    - Advertisement -

    আপডেট খবর