কলকাতা: নির্বাচন কমিশনের শাস্তির খাঁড়া পশ্চিমবঙ্গে। শুক্রবারের বদলে বৃহস্পতিবার রাত দশটার মধ্যেই শেষ করে ফেলতে হবে ভোটের যাবতীয় প্রচার। সেই কারণেই এ দিন সকাল থেকেই প্রচারে জমজমাট হয়ে উঠেছে কলকাতা এবং পার্শ্ববর্তী অঞ্চলের ভোটকেন্দ্রগুলি।

সব দলই এ দিন সকাল থেকে প্রচারে ব্যস্ত। কলকাতার উত্তর শহরতলির বরাহনগরে এ দিন রোড-শো করেন দমদম লোকসভা কেন্দ্রের সিপিএম প্রার্থী নেপালদেব ভট্টাচার্য। সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরিকে সঙ্গে নিয়ে নেপালদেববাবুর এই রোড-শোতে বাম কর্মী সমর্থকদের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো। এই কেন্দ্র থেকে তিনি জিতবেন শুধু নয়, অনেক বড়ো ব্যবধানেই জিতবেন বলে আশা প্রকাশ করেন নেপালদেববাবু।

তবে শুধু উত্তরেই নয়, দক্ষিণ কলকাতার যাদবপুর কেন্দ্রেও এ দিন সকাল থেকে প্রচার শুরু করেছে বামেরা। তৃণমূল এবং বিজেপিকে এক আসনে বসিয়ে বামেদেরই প্রকৃত বিকল্প ভাবার আহ্বান জানানো হচ্ছে মানুষদের কাছে।

আরও পড়ুন শেষ দফার আগেই এক্সিট পোল, মুছে দেওয়ার জন্য টুইটারকে অনুরোধ কমিশনের

এ দিন সকালে দু’টো জনসভার পর তিনটে রোড-শো করার কথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। এ দিন দুপুর একটায় মথুরাপুরে সভা করবেন মুখ্যমন্ত্রী। তার পরে ডায়মন্ড হারবারে সভা রয়েছে তাঁর। এই দু’টি জনসভা সেরে কলকাতায় ফিরবেন বিকেলে। তার পর শহরেই তিনটে রোড শো করবেন তিনি। প্রথম রোড শোটি করবেন বেহালায়, দ্বিতীয়টি যাদবপুরে এবং তৃতীয়টা কলকাতা দক্ষিণে।

পিছিয়ে নেই বিজেপিও। বুধবারের পর এ দিনও রাজ্য আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। দলীয় প্রার্থীদের সমর্থনে দমদম এবং মথুরাপুরে সভা করবেন তিনি। সব মিলিয়ে আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা পরেই থামতে চলেছে রাজ্যে ভোট প্রচারের দামামা।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here