কলকাতা: নিউটাউনে এক আইনজীবীর মৃত্যুকে ঘিরে ডানা বাঁধল রহস্য। পুত্রবধূর বিরুদ্ধে ছেলেকে খুন করার অভিযোগ করেছেন  মৃত আইনজীবীর বাবা। যদিও সেই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন পুত্রবধূ।

সোমবার নিউটাউনের ডিবি ব্লকে উদ্ধার হয় আইনজীবী রজত কুমার দের দেহ। তিনি কলকাতা হাইকোর্টের আইনজীবী। তাঁর স্ত্রী অনিন্দিতা পাল দে-ও পেশায় আইনজীবী।

রজতবাবুর বাবার অভিযোগ, রবিবার রাতে ছেলের সঙ্গে ফোনে কথা বলেন তিনি। পরে সোমবার ভোরে ছেলের মৃত্যুর খবর পান। অনিন্দিতার সঙ্গে ইদানীং রজতের সম্পর্কের অবনতি হয়েছিল বলে দাবি পরিবারের।

আরও পড়ুন বিমানে বসে সন্দেহজনক বার্তা, কলকাতা বিমানবন্দর থেকে ধৃত যুবক

অনিন্দিতা রজতের ওপর মানসিক নির্যাতন করতেন বলে অভিযোগ। অভিযোগ, রবিবার রাতে রজতবাবুকে জোর করে কীটনাশক খাইয়ে দেন অনিন্দিতা। তবে এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন অনিন্দিতা।

অনিন্দিতার দাবি, রবিবার রাতে একজনের সঙ্গে ফোনে কথা বলছিলেন তিনি। সেই কারণে রজতবাবুকে পাশের ঘরে চলে যেতে বলেন। অনিন্দিতার কথামতো এর পরেই লোডশেডিং হয়ে যায়। আলো আসতে খেয়াল করেন খাটেই পড়ে রয়েছে রজতবাবুর নিথর দেহ। রজতবাবুর বাবার অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here