পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন ১৯৯১: এক বছর ভোট এগিয়ে এনে ফের ক্ষমতায় বামফ্রন্ট

0
ইতিহাসে বিধানসভা নির্বাচন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: এমনিতে পশ্চিমবঙ্গের সংসদীয় গণতন্ত্রের ইতিহাসে ঐতিহাসিক কোনো নির্বাচন এটি নয়। কিন্তু মাত্র চার বছর ক্ষমতায় থেকেই পশ্চিমবঙ্গ সরকার নির্বাচনকে এক বছর এগিয়ে আনার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছিল, সেটা বেশ তাৎপর্যপূর্ণ।

আসলে ১৯৯১ সালে দেশে লোকসভা নির্বাচন হওয়ার ছিল। ওই ভোটের সঙ্গে সামঞ্জস্য রাখার জন্যই নির্বাচন কমিশনকে আবেদন করে ভোট এগিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নেয় তৎকালীন বাম সরকার।

Loading videos...

১৯৭৭-এ ক্ষমতায় আসার পর মাঝে আরও দুটি বিধানসভা নির্বাচন হয়ে গিয়েছে এই রাজ্যে। সেই দুই নির্বাচনে জিতে ক্ষমতায় ফিরে আসতে কোনো বেগ পেত এ হয়নি বামফ্রন্টকে।

কিন্তু এই দীর্ঘ সময়কালে দেশের রাজনীতিতে অনেক বড়ো বড়ো ঘটনা ঘটে গিয়েছে। তিন বছর ক্ষমতায় থাকার পর জনতা পার্টির সরকার ক্ষমতাচ্যুত হয়। ইন্দিরা গান্ধী আবার ক্ষমতায় ফিরে আসেন। কিন্তু খলিস্তানি উগ্রপন্থীদের হাতে ১৯৮৪-এর ৩১ অক্টোবর নিহত হন ইন্দিরা। সহানুভূতির হাওয়ায় ভর দিয়ে ব্যাপক সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় আসেন রাজীব গান্ধী ওই বছরেরই ডিসেম্বরে।

কিন্তু পাঁচ বছর পরেই তাঁর দল ক্ষমতাচ্যুত হয়। ১৯৮৯-এর নির্বাচনে ক্ষমতাসীন রাষ্ট্রীয় মোর্চার সরকার। প্রধানমন্ত্রী হন বিশ্বনাথপ্রতাপ সিং। ওই সরকারকে বাইরে থেকে সমর্থন করে এক দিকে বাম দলগুলি আর অন্য দিকে বিজেপি। কিন্তু অভ্যন্তরীণ বিরোধিতার জন্য ১১ মাস পরে বিশ্বনাথপ্রতাপ পদত্যাগ করেন। ১৯৯০-এর ১০ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী হন চন্দ্রশেখর। তাঁকে বাইরে থেকে সমর্থন করে রাজীব গান্ধীর কংগ্রেস। চার মাসও টেকেনি এই সরকার। তুচ্ছ অজুহাতে কংগ্রেস সমর্থন তুলে নেওয়ায় পড়ে যায় চন্দ্রশেখরের সরকার। নির্বাচন অনিবার্য হয়ে দাঁড়ায়। ১৯৯১-এর মে-জুনে লোকসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ২০ মে প্রথম দফা ভোটের দিন তামিলনাড়ুতে এলটিটিই জঙ্গিদের হাতে নিহত হন রাজীব গান্ধী।       

১৯৯১-এর লোকসভা নির্বাচনের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে পশ্চিমবঙ্গেও ভোটে যায় বামফ্রন্ট। ভোটের ফলাফল প্রত্যাশিতই ছিল। তবে বামেদের আরও ক্ষমতা বাড়ল এই নির্বাচনে। ২৯৪টার মধ্যে ২৪৫টা আসনই দখল করল তারা। এর মধ্যে ১৮২টা আসন জিতল সিপিএম। সাতগাছিয়া কেন্দ্র থেকে জিতে ফের একবার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হলেন জ্যোতি বসু।

বিরোধী হিসেবে কংগ্রেস জিতেছিল ৪৩টি আসন। তবে এই ভোটে বিজেপির উত্থান বেশ লক্ষণীয় ছিল। ভোটে তারা ২৯১টি আসনে প্রার্থী দেয়। এই প্রথম এত বেশি সংখ্যক আসনে প্রার্থী দেয় বিজেপি। ১৯৮৭ সালের নির্বাচনে ০.৫১ শতাংশ ভোট পাওয়া বিজেপি এই নির্বাচনে পায় ১১ শতাংশেরও বেশি ভোট।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.