বঙ্গোপসাগরের নিম্নচাপ প্রভাব ফেলতে পারে পশ্চিমবঙ্গে, সামনের সপ্তাহে দুর্যোগের আশংকা

0

কলকাতা: আয়লা, উম্পুন (আম্ফান), ইয়াস-এর মাসে বঙ্গোপসাগরে নতুন করে চোখরাঙানি। ঘূর্ণিঝড় হবে কি হবে না, এত আগে থেকে বলা যায় না। তবে সেই রকম আশংকা তো রয়েছেই। আর তার সরাসরি অভিঘাত পশ্চিমবঙ্গ উপকূলে পড়তে পারে, এমন আশংকাও অমূলক নয়।

এই মুহূর্তে যদি উইন্ডি অ্যাপ খোলা হয় তা হলে দেখা যাবে যে সেখানে বলা হচ্ছে যে ১০ মে পশ্চিমবঙ্গ উপকূলে একটি ঘূর্ণিঝড় আছড়ে পড়তে চলেছে। তবে উইন্ডি অ্যাপ সব সময় সঠিক বলে না এটা মাথায় রাখতে হবে। এমনকি ওরা ঘণ্টায় ঘণ্টায় নিজেদের পূর্বাভাস বদলে ফেলে। ফলে এখন পশ্চিমবঙ্গ উপকূল দেখালেও, ৬ ঘণ্টা পর হয়তো দেখাবে যে বাংলাদেশ উপকূলে আছড়ে পড়তে চলেছে সে।

তবে এটা ঠিক যে পশ্চিমবঙ্গ উপকূলে একটা দুর্যোগ হওয়ার আশংকা ক্রমশ বাড়ছে। আপাতত সেই রকম সম্ভাবনা ৫০ শতাংশ। আগামী সপ্তাহের সোমবার অর্থাৎ ৯ মে থেকে বুধবার ১১ মে পর্যন্ত ওই নিম্নচাপের প্রভাব পড়তে পারে পশ্চিমবঙ্গে। রবিবার, ৮ মের সন্ধ্যা থেকেই আবহাওয়ায় বদল লক্ষ্য করা যেতে পারে রাজ্যে। তবে সেই নিম্নচাপটি কী ভাবে পশ্চিমবঙ্গে আসবে, সেটা এখনই আন্দাজ করা যাচ্ছে না। যদিও ঘূর্ণিঝড়ের আশংকা রয়েছে।

আপাতত প্রাথমিক ভাবে যা বোঝা গিয়েছে সেটা হল আগামী ৪-৫ তারিখ নাগাদ দক্ষিণ আন্দামান সাগর এবং দক্ষিণপূর্ব বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপটি তৈরি হবে। পরবর্তীকালে সেটি উত্তর-উত্তরপশ্চিম দিকে এগোতে শুরু করবে। পূর্বমধ্য বঙ্গোপসাগরে এসে নিম্নচাপটি কিছুটা ঘুরে উত্তর এবং উত্তরপূর্বমুখী হতে পারে। তখনই সে শক্তি বাড়িয়ে গভীর নিম্নচাপ এবং আরও শক্তি বাড়িয়ে ঘূর্ণিঝড়ে রূপান্তরিত হতে পারে।

আপাতত উত্তর অন্ধ্রপ্রদেশ থেকে বাংলাদেশ উপকূল, এই গোটা অঞ্চলকেই ওই নিম্নচাপ তথা ঘূর্ণিঝড়ের সম্ভাব্য আঘাত হানার স্থান হিসেবে তৈরি থাকতে হবে।

আরও পড়তে পারেন:

‘ললিপপে ভুলছি না’, ফের সুর বদল অর্জুন সিংহের

কাটল না জট, শপথবাক্য পাঠ নিয়ে বাবুলের আর্জিতে সংবিধান ভাঙার ইঙ্গিত রাজ্যপালের

বিজেপি বিরোধিতায় ‘অপরিহার্য’ হলেও একমাত্র বিরোধী মুখ নন মমতা, দাবি কংগ্রেস নেতা অভিষেক মনু সিঙ্ঘভির

মুখময় কাঁচা-পাকা দাড়ি, নিজের বদলে যাওয়া ইমেজের জট খুলে দিলেন ববি দেওল

বাবুল সুপ্রিয়র শপথগ্রহণ নিয়ে ফের অনিশ্চয়তা, নারাজ ডেপুটি স্পিকার

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন