কলকাতা: শক্তিশালী নিম্নচাপের প্রভাবে কলকাতায় যে মারাত্মক বৃষ্টির আশংকা করা হচ্ছিল, বুধবার সকাল ন’টা পর্যন্ত তা হয়নি। কিন্তু এই নিম্নচাপটির সব থেকে বেশি প্রভাব পড়েছে দুই মেদিনীপুরে। প্রবল বৃষ্টিতে ভাসছে পূর্ব এবং পশ্চিম মেদিনীপুরের একাধিক শহর। ভালো প্রভাব পড়েছে দক্ষিণ ২৪ পরগণাতেও।

বুধবার সকাল সাড়ে ৮টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সব থেকে বেশি বৃষ্টি হয়েছে হলদিয়ায় (২১৬ মিলিমিটার)। এর মধ্যে ১৩০ মিলিমিটার বৃষ্টিই হয়েছে ভোর সাড়ে ৫টা থেকে পরের তিন ঘণ্টায়। এত কম সময়ের মধ্যে এই প্রবল বৃষ্টির জেরে শিল্পশহর ভেসে গিয়েছে।

তীব্র বৃষ্টি হয়েছে খড়গপুর শহরে। গত ২৪ ঘণ্টায় এই শহরে বৃষ্টির পরিমাণ ১৬৭ মিলিমিটার। সেপ্টেম্বরের প্রথম দিকেই তীব্র বৃষ্টিতে বানভাসি হয়ে পড়েছিল খড়গপুর। ফের একবার এই রকম পরিস্থিতির সৃষ্টি হল এই শহরে। মেদিনীপুরে বৃষ্টি হয়েছে ১৪৮ মিলিমিটার। প্রবল বৃষ্টি হচ্ছে ঝাড়গ্রামেও।

দক্ষিণ ২৪ পরগণাতেও প্রবল বৃষ্টি হয়েছে এই নিম্নচাপের কারণে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেড়শো মিলিমিটার বৃষ্টি পেয়েছে ডায়মন্ড হারবার। ক্যানিংয়ে ৫৮ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে।

তুলনামূলক ভাবে কম বৃষ্টি হয়েছে কলকাতায়। গত ২৪ ঘণ্টায় আলিপুরে রেকর্ড করা হয়েছে ৮৭ মিলিমিটার বৃষ্টি। দমদমে তো বৃষ্টি আরও কম (৪৭ মিলিমিটার)। কলকাতার উপকণ্ঠের ব্যারাকপুরে ৫২ মিলিমিটার। তুলনামূলক কম বৃষ্টি হওয়ার কারণে কলকাতায় জল জমলেও এখনও গত সপ্তাহের মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়নি।

নিম্নচাপটি বর্তমানে বাঁকুড়ায় অবস্থান করছে। সে ক্রমশ উত্তরপশ্চিম দিকে এগোবে। ফলে সময় যত গড়াবে রাজ্যের পশ্চিমের জেলাগুলিতে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির দাপট বাড়তে পারে। বুধবার বিকেলের দিক থেকে কলকাতা এবং পার্শ্ববর্তী অঞ্চলের আবহাওয়ার উন্নতি হতে শুরু করবে।

আজকের আরও কিছু কিছু উল্লেখযোগ্য খবর পড়তে পারেন:

দৈনিক সংক্রমণ থাকল ১৮ হাজারের ঘরেই, তবে বেড়ে গেল মৃতের সংখ্যা

আসল রূপ বেরিয়ে আসছে তালিবানের! কাবুল বিশ্ববিদ্যালয়ে নিষিদ্ধ হল মেয়েদের প্রবেশ

নিম্নচাপের কেন্দ্র দূরে সরতেই প্রবল বৃষ্টি কলকাতা ও পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে

রাতারাতি শক্তি বাড়াল নিম্নচাপ, কলকাতা, দক্ষিণ ২৪ পরগণা জুড়ে ঝড়ের তাণ্ডব

পশ্চিমবঙ্গে দৈনিক সংক্রমণ ফের সাতশো পার, বেড়ে গেল সংক্রমণের হারও

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন