Madan-mitra

কলকাতা: তিনি এখন মন্ত্রী নন, বিধায়কও নন। তবে তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা হিসাবে তাঁর সমান দাপট রয়েছে বঙ্গ-রাজনীতিতে। এ হেন প্রাক্তন মন্ত্রী মদন মিত্র ফের স্বমহিমায়।

আগামী এসো নাটক শিখি সংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত কলকাতা বিশ্ব শিশু নাট্যোৎসবের মাধ্যমে মদনবাবুর ভূমিকা অন্য মাত্রা এনে দিতে পারে পশ্চিমবঙ্গের বর্তমান রাজনীতিতে। এ কথা ঠিক, ওই অনুষ্ঠানের সঙ্গে রাজনীতির কোনো প্রত্যক্ষ যোগাযোগ নেই। কিন্তু এক দিকে যখন বিজেপি রাজ্যের বিদ্বজ্জনদের সমর্থন আদায়ে উল্লেখযোগ্য কর্মসূচি নিয়ে চলেছে, তখন একই মঞ্চে প্রথমসারির বুদ্ধিজীবীদের হাজির করে মদনবাবু নির্দিষ্ট বার্তা দেওয়ার অপেক্ষায়।

Madan-mitra 2

আকাদেমিতে আয়োজিত ১৭-২১ জুনের ওই নাট্যোৎসবে উপস্থিত থাকার কথা শর্মিলা ঠাকুর, রুদ্রপ্রসাদ সেনগুপ্ত, দেবশংকর হালদার, যোগেন চৌধুরী বা শুভাপ্রসন্নর মতো নিজের ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত ব্যক্তিত্বদের। রাজনীতির বেড়া টপকে ওই অনুষ্ঠানে বাংলা তথা দেশের সাংস্কৃতিক জগতের এই উজ্জ্বল নক্ষত্রদের হাজির করার নেপথ্যে যে মদনবাবুর বড়োসড়ো ভূমিকা রয়েছে, তা অনস্বীকার্য।

ওই নাট্যোৎসবে শুধু যে কচিকাঁচাদের নাটক উপস্থাপিত হবে তা নয়। থাকছে মিউজিক্যাল থিয়েটার, ঝুমুর গান, মূকাভিনয়-সহ শোভাযাত্রাও। সারা রাজ্যের অংসখ্য নাট্যগোষ্ঠীর উপস্থিতির পাশাপাশি থাকছে ভারতের অন্যান্য রাজ্য সমেত সাউথ আফ্রিকা, নেপাল, শ্রীলঙ্কা এবং বাংলাদেশের উপস্থিতিও। এই প্রকাণ্ড একটি কর্মকাণ্ডের সভাপতি হিসাবে মদনবাবু যে গুরুদায়িত্ব পালন করছেন সে কথা স্বীকার করে এক মদন-অনুগামী বলেন, “দাদা বরাবরই এ ধরনের সাংস্কৃতিক কর্মসূচিতে নিয়ে থাকেন। এর মধ্যে রাজনীতির কোনো ছোঁয়া নেই। নিজের নির্বাচনী এলাকা কামারহাটিতে তাঁর উদ্যোগে এ ধরনের অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়ে চলেছে সারা বছর জুড়েই। ফলে এটা নতুন কিছু নয়”।

Madan-mitra 3

উল্লেখ্য, ওই অনুষ্ঠানের সহযোগী হিসাবে রয়েছে অটোমোবাইল অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্টার্ন ইন্ডিয়া। অনুপ্রেরণা সেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘সেফ ড্রাইভ সেভ লাইভ’।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here