সংগ্রামপুর বিষমদ-কাণ্ডে মূল অভিযুক্ত খোঁড়া বাদশার আমৃত্যু কারাদণ্ড

0

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সংগ্রামপুর বিষমদ কাণ্ডে মূল অভিযুক্ত নূর ইসলাম ফকির ওরফে খোঁড়া বাদশার যাবজ্জীবন জেলের সাজা ঘোষণা করল আলিপুর আদালত। সোমবার সাজা ঘোষিত হয়। শনিবার আলিপুর আদালত এই মামলায় খোঁড়া বাদশাকে দোষী সাব্যস্ত করে।

উল্লেখ্য, ২০১১ সালের ১৫ ডিসেম্বর উস্তি-সহ আশেপাশের বিস্তীর্ণ এলাকায় বিষমদ খেয়ে মৃত্যু হয় ১৭৩ জনের। যা সংগ্রামপুর বিষমদ কাণ্ড হিসেবে পরিচিত। এই ঘটনায় মগরাহাট এবং উস্তি থানায় দু’টি পৃথক মামলা দায়ের করা হয়েছিল। পশ্চিমবঙ্গ সরকার এই বিষমদ কাণ্ডের তদন্তের দায়িত্ব তুলে দেয় সিআইডির হাতে।

তদন্তে উঠে আসে মূল অভিযুক্ত নুর ইসলাম ফকির ওরফে খোঁড়া বাদশার নাম। শনিবার আদালত খুন, গুরুতর ক্ষতি করা সহ-৪ ধারায় দোষী তাকে সাব্যস্ত করে আদালত।

প্রসঙ্গত, উস্তি থানার মামলার রায় ২০১৮ সালে ঘোষণা করে আলিপুর আদালত। ওই মামলাতেও খোঁড়া বাদশা-সহ চারজনকে দোষী সাব্যস্ত করে আদালত। তাদের যাবজ্জীবন কারাবাস দেওয়া হয়। একইসঙ্গে দোষীদের ৫০ হাজার টাকা জরিমানাও করেন বিচারক। পাশাপাশি খোঁড়া বাদশার স্ত্রী শাকিলা বিবি-সহ ছ’জনকে বেকসুর খালাস করে দেওয়া হয়।

Shyamsundar

শনিবার মগরাহাটের মামলাটিতে খোঁড়া বাদশাকে দোষী সাব্যস্ত করে আদালত। সোমবার তারই রায় ঘোষণা করা হয়।

আরও পড়তে পারেন ১৬ আগস্ট থেকে ‘দুয়ারে সরকার’, শ্রম দফতরের সিকেসিও কর্মীদের মধ্যে উদ্বেগ

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন