বিজেপির ‘রথযাত্রা’কে তীব্র কটাক্ষে বিঁধলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

0

খবর অনলাইন ডেস্ক: বুধবার মালদহের জনসভায় বিজেপিকে তীব্র কটাক্ষে বিঁধলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)।

তিনি বলেন, “আমরা পুরীর রথযাত্রার কথা জানি, ইসকনের রথযাত্রার কথা জানি। আমি ইসকনের রথযাত্রায় যাই। রথের দড়ি টানি। পুরীতে গিয়ে পুজো দিই। আমরা রথকে শ্রদ্ধা করি। আর বিজেপির নেতারা নিজেদের দেবতা ভাবছেন। জগন্নাথ-বলরাম-সুভদ্রা হয়ে রথে বসছেন। বড়ো বাসকে হোটেল বানিয়ে রথ বলছে। সেই হোটেলে ঘুরে বেড়াচ্ছে আর খাচ্ছে। এত টাকা কোথা থেকে এল? আমরা রথযাত্রাকে সম্মান করলেও আপনাদের এই রথযাত্রাকে সম্মান করতে পারব না”।

Loading videos...

ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করার অভিযোগ এনে মমতা বলেন, “রথ হল ধর্মীয় বিষয়। ধর্মকে কেউ অসম্মান করতে পারেন না। ধর্মকে অসম্মান করা মানে আমার আত্মাকে অসম্মান করা”।

পাশাপাশি বিজেপির রথযাত্রা নিয়ে তীব্র আক্রমণ শানিয়ে মমতা বলেন, “এখন রথযাত্রা করছেন বাবুরা। রাবণ-রথ নিয়ে সীতাকে হরণ করেছিল। সেই রাবণ-রথই কি আপনারা চালাচ্ছেন”?

এ বার ভোট ভাগাভাগি এড়ানোর বার্তা দিয়ে তিনি বলেন, “মালদহে একটা সিটে বিজেপি জিতেছে, আর একটায় কংগ্রেস। এখানকার জন্য কী করেছে। ৩০ বছর ধরে এখানে আসি। আমি মালদহের জন্য অনেক করেছি। কিছুই পাইনি। কোনো আসন পাইনি। মালদহে কি আমাদের হাত খালি থাকবে। এ বারের ভোটে পূর্ণ হাতে ফিরতে চাই। ভোট এলে এখানে অঙ্ক বদলে যায়। বাম-কংগ্রেস-বিজেপি ভোট ভাগ করে নেয়। এদের মধ্যে আঁতাঁত রয়েছে। কিন্তু এ বারে আমি শূন্য হাতে ফিরতে আসিনি”।

এ দিনেই বিজেপির বিরুদ্ধে তোপ দেগে মমতা বলেন, “ভোটের সময় বিজেপি টাকা নিয়ে আসবে। টাকা দিলে নিয়ে নেবেন, কিন্তু ভোট দেবেন না। ওটা ওদের টাকা নয়। সাধারণ মানুষের টাকা”।

আরও পড়তে পারেন: যত দিন বাঁচব, রয়্যাল বেঙ্গল টাইগারের মতো বাঁচব: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.