সুজাপুরে গাড়ি ভাঙছে পুলিশ! সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল ভিডিও

0

কলকাতা: ১০টি কেন্দ্রীয় শ্রমিক সংগঠনের ডাকা সারা ভারত সাধারণ ধর্মঘটে বিক্ষিপ্ত অশান্তি ছড়াল গোটা রাজ্যেই। বুধবার বিকেলে সাংবাদিক বৈঠকে সিপিএমের পলিট ব্যুরো সদস্য মহম্মদ সেলিম দাবি করেন, “ধর্মঘটকে ব্যর্থ করতে রাজ্য প্রশাসন অশান্তি ছড়িয়েছে। পুলিশ ভাঙচুর চালিয়েছে, গাড়িতে আগুন দিয়েছে”। একই সঙ্গে সেলিমের দাবির সঙ্গে সাজুয্যপূর্ণ একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ধর্মঘটকে কেন্দ্র করে অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে মালদহের সুজাপুর। সেখানে জাতীয় সড়ক অবরোধ করেন ধর্মঘটীরা। তাঁদের হঠাতে পুলিশ রবার বুলেট এবং কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে। পুলিশের একাধিক গাড়িতে আগুন জ্বালিয়ে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে ধর্মঘটীদের বিরুদ্ধে।

সাংবাদিক বৈঠকে সেলিম দাবি করেন, “সুজাপুরে তৃণমূলের গুন্ডাদের সঙ্গে হাত মিলিয়ে পুলিশ হামলা চালিয়েছে। পুলিশই গাড়ি ভাঙচুর করেছে, আগুন জ্বালিয়েছে। আপনাদের (সাংবাদিক) কাছ থেকে শুনছি, পুলিশ গুলিও চালিয়েছে”।

যুক্তি হিসাবে সেলিম তুলে ধরেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্য নাথের প্রসঙ্গ। তিনি বলেন, “সিএএ নিয়ে প্রতিবাদ জানিয়ে গুলিতে নিহত হয়েছেন বিক্ষোভকারীরা। অথচ যোগী বলেছেন, তাঁর পুলিশ গুলি চালায়নি। এখানেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একই কথা বলছেন”।

সেলিম বলেন, “উত্তরপ্রদেশে যোগীর পুলিশ দোকানপাট ভাঙচুর করেছে। আর এখানে আজ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পুলিশ গাড়ি ভাঙচুর করেছে”।

Just see it. Today's incident at Sujapur, Malda. What can we expect from police personnel?

Posted by Samsul Hoque on Wednesday, January 8, 2020

[ আরও পড়ুন: ধর্মঘটকে কেন্দ্র করে অগ্নিগর্ভ মালদহের সুজাপুর ]

এ প্রসঙ্গে এক পুলিশ আধিকারিক অবশ্য সংবাদ মাধ্যমের কাছে জানিয়েছেন, ভিডিয়োটি সম্পর্কে খতিয়ে দেখেই তিনি মন্তব্য করবেন।

আজকে মালদা সুজাপুরে এক NRC বিরুদ্ধে আন্দলনে হঠাৎ পুলিশ ফোর্স আসে সাধারণ পাবলিকের উপর গুলি এবং বোমা মারছে পুলিশ নিজেই সাধারণ লোকের গাড়িতে আগুন লাগিয়ে দিল পুলিশ নিজেই গাড়িগুলো তে আগুন লেগেছে আর আমরা লুকিয়ে ভিডিও রেকর্ড করছি Sujapur malda west bengal

Posted by D Khan on Wednesday, January 8, 2020

দ্রষ্টব্য: যে ভিডিও থেকে ছবিগুলি নেওয়া হয়েছে, তার সত্যতা যাচাই করা হয়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.