modi mamata
প্রতীকী ছবি

কলকাতা: রাজ্য সরকারের প্রস্তাবিত নতুন নাম বাংলা বাতিল করে দিয়েছে কেন্দ্রের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। এই ঘটনায় যারপরনাই ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ক্ষোভ উগরে দিলেন সংবাদ মাধ্যমের কাছে। তিনি বলেন, রাজনীতির ফাঁসেই আটকে রয়েছে রাজ্যের নাম বদলের প্রস্তাব। বিজেপি দেশের যুক্তরাষ্ট্রীয় পরিকাঠামোকে অস্বীকার করে পার্টি অফিস থেকে দেশ চালাচ্ছে।

মমতা এ দিন বলেন, “রাজনৈতিক স্বার্থপূরণে বিজেপি নিজের ইচ্ছে মতো যা খুশি তাই করছে। মুম্বই, ওড়িশার নাম বদল হয়ে যায়, কিন্তু আমাদের রাজ্যের নাম বদল হতেই যত আপত্তি। গুজরাত, মহারাষ্ট্র থেকে বিহারিদের খেদিয়ে দেওয়া হচ্ছে। বলছে গুজরাত ফর ওনলি গুজরাতি, মহারাষ্ট্র ফর ওনলি মরাঠী, আমরা তো তেমন বলছি না। আমরা শুধু নিজেদের জন্মভূমির নাম ফিরে যেতে চাইছি। বাবা-মায়ের দেওয়া নাম কেউ কি অস্বীকার করতে পারে? না কি কেউ কেড়ে নিতে পারে”?

রাজ্য সরকারের প্রস্তাবিত বাংলা নাম খারিজ করে কেন্দ্র প্রস্তাব দিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ করার। এর মধ্যেও বিজেপির বঞ্চনার রাজনীতি রয়েছে বলে মনে করেন মমতা। তিনি বলেন, “এ সবের উদ্দেশ্য হল বাংলার মানুষকে পিছনের সারিতে ঠেলে দেওয়া। যখন কোনো সর্বভারতীয় পরীক্ষায় কেউ অংশ নেবেন, তখন পশ্চিমবঙ্গের প্রার্থীর নাম ডাকা হবে একেবারে শেষে। কিন্তু এ সব করে কিছু হবে না। ওরা যেন মনে রাখে, দেশটাকে চালায় রাজ্যগুলো। কেন্দ্রে যেমন নির্বাচিত, সংবিধানসম্মত সরকার, তেমনই রাজ্যেও একই। বিধানসভায় পাশ করে রাজ্যপালের মারফত নামবদলের প্রস্তাব আমরা পাঠিয়েছি”।

কেন্দ্রের দ্বিচারিতা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, গুরুত্বপূর্ণ আর্থিক বিলগুলোও ধ্বনিভোটে পাশ করিয়ে নেয় বিজেপি সরকার। আর বাংলার নামবদলের ২ মিনিটের কাজ নিয়ে এতটাই টালবাহানা করছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here