mamata banerjee and sovan chatterjee

কলকাতা: দলের কাউন্সিলারদের নিয়ে বৃহস্পতিবার আলিপুরে বৈঠক করলেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এ দিন তিনি বলেন, “শোভন আগেও ৩-৪ বার ইস্তফা দেওয়ার কথা জানিয়েছিল। নিজের পদের দায়িত্ব যাতে আগের মতোই পালন করে, সে জন্য ফিরহাদকে দিয়ে কথা বলাই। কিন্তু মঙ্গলবার সে বলে ‘আমি বাধ্য হচ্ছি ইস্তফা দিতে’। এতে কারো মধ্যে কোনো ঝগড়াঝাঁটির ব্যাপার নেই”।

মমতা বলেন, মন্ত্রিত্ব ছেড়ে দেওয়ার পর স্বাভাবিক ভাবেই মেয়রপদ থেকে ইস্তফা দিতে বলা হয়। কারণ পুরপরিষেবা অব্যাহত রাখতে দল এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কারণ এমন পরিস্থিতিতে এই কাজ ফেলে রাখা উচিত নয়। ফিরহাদ হাকিম রাজ্যের সমস্ত পুরসভাগুলিই দেখেন। কারণ, তিনি রাজ্যের পুরমন্ত্রী। ফলে পুরসভার কাজ বোঝেন এবং দায়িত্ব নিয়ে কাজ করবেন, তেমন একজনকেই পুরসভার মেয়রপদের ভার তুলে দিয়েছে দল।

এ দিন মুখ্যমন্ত্রী যাদবপুরের জল সমস্যা-সহ একাধিক সমস্যার কথা তুলে ধরেন। পাশাপাশি সেই সব সমস্যা কাটিয়ে মানুষের কাছে পুরপরিষেবা পৌঁছে দিতে বর্তমান কাউন্সিলারদের দায়িত্ব নিতে হবে। তবে ফিরহাদ সরকারি ভাবে দায়িত্ব হাতে তুলে নেওয়া না পর্যন্ত মেয়র পারিষদ সদস্যরা নিজের পদেই থাকবেন। পরবর্তী কালে দু’-একজনের স্থানান্তরের প্রয়োজন হলে তা করা হবে।

ভোটের মাধ্যমে আইনানুযায়ী মেয়র নির্বাচন করার জন্য দিন দশেক সময় লাগতে পারে। কিন্তু এই সময়কালে যাতে পরিষেবার কাজে কোনো রকমের ব্যাঘাত সৃষ্টি না হয়, সে দিকে কড়া নজর রাখতে হবে।

আরও পড়ুন: ইস্তফা দিলেন শোভন, নতুন মেয়র পেয়ে গেল কলকাতা পুরসভা!

একই সঙ্গে এদিনের বৈঠকে তিনি মেয়র ও ডেপুটি মেয়রের নাম প্রস্তাব করার অনুরোধ জানান। পূর্ব ঘোষণা মতোই দুই পদে যথাক্রমে ফিরহাদ হাকিম এবং অতীন ঘোষের নাম প্রস্তাব এবং সমর্থিত হয়।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here