ফাইল ছবি

কলকাতা: অন্যান্য বারও পুজোয় বাড়তি ছুটি ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু এ বার যেন আরও দরাজ তিনি। শারদোৎসব উপলক্ষ্যে সরকারি কর্মীদের দু’ সপ্তাহের ছুটি দিয়ে দিলেন তিনি।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, এই বছরে ৩ অক্টোবর থেকে ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত চলবে পুজোর ছুটি। অতীতেও এই রাজ্যে পঞ্চমীতে ছুটি দেওয়া হয়েছে পুজোয়। তবে এ বার মুখ্যমন্ত্রী পঞ্চমী থেকে পুজোর ছুটি ঘোষণা করলেও আদতে ছুটি মিলবে চতুর্থীর দিন থেকেই। কারণ সে দিন ২ অক্টোবর গান্ধী জয়ন্তী। আবার পুজো মিটে গেলেও বাড়তি দু’দিন ছুটি মিলবে। ১৩ তারিখ লক্ষ্মী পুজো। সাধারণত তার পরের দিন থেকে সরকারি অফিস চালু হয়ে যায়। কিন্তু এ বার লক্ষ্মী পুজোর পরেও ১৪ ও ১৫ অক্টোবর ছুটি মিলবে। এর পরে আবার কালীপুজো ও ভাইফোঁটার জন্যও ছুটি থাকবে সরকারি অফিসে।

আরও পড়ুন ৪৩৯ বছর আগে নয় লক্ষ টাকা ব্যয় করে দুর্গাপুজো করেছিলেন রাজা কংসনারায়ণ

এই ছুটি ঘোষণা করতে গিয়ে মমতা বলেন, এই রাজ্যের মতো এত ছুটি কোথাও পাওয়া যাবে না। কাজের সঙ্গে ছুটিও জরুরি বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। তবে এই ছুটি ঘোষণার পরেও বিরোধীদের থেকে তোপ ধেয়ে আসতে পারে।

কারণ এ রাজ্যে কর্মদিবস যাতে নষ্ট না হয়, সে কারণে বন্‌ধের দিনেও কর্মসংস্কৃতির সূচনা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তার এক্কেবারে উলটো পথে গিয়ে টানা এত দিন ছুটির ফলে ‘কর্মদিবস নষ্ট’ হওয়ার পালটা অভিযোগ তুলতেই পারে বিরোধীরা।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন