Mamata-Banerjee
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ছবি: রিপাবলিক ‌টিভি

কলকাতা: কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদী সরকার আগেই চালু করেছে ‘গিভ আপ এলপিজি সাবসিডি’ অর্থাৎ রান্নার গ্যাসে ভরতুকি ছেড়ে দেওয়ার প্রকল্প। কতকটা একই রকম ভাবে রাজ্যের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারের ভাবনায় রয়েছে, প্রকৃত অর্থে যোগ্য গ্রাহকের হাতে রেশন সামগ্রী তুলে দেওয়ার জন্য, রেশন কার্ড ‘প্রত্যাহার’ উদ্যোগ। যেখানে রেশনসামগ্রী সে ভাবে প্রয়োজন নেই, এমন ব্যক্তিরা নিজেদের এই ব্যবস্থা থেকে সরিয়ে নিতে পারেন।

রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক বলেন, এই প্রকল্পের লক্ষ্য মোটেই এমনটা নয় যে সরকার কারও রেশন কার্ড বাতিল করে দিচ্ছে। যাঁরা বাজার দরে রেশন দোকান থেকে সামগ্রী নিতে চাইবেন, তাঁরা নিতেই পারেন। আগে একটা নিয়ম ছিল, পরপর চার সপ্তাহ রেশন না নিলে কার্ড বাতিল হয়ে যেত। কিন্তু এখন টানা ১০ বছর রেশন না নিলেও কার্ডের উপর কোনো প্রভাব পড়বে না।

“মুখ্যমন্ত্রী নির্দেশ মতোই আমরা এই কর্মসূচি নিয়েছি। প্রত্যেকেই নতুন রেশন কার্ডের জন্য আবেদন করতে পারবেন। এ বিষয়ে কোনো দ্বিমত নেই। কিন্তু আর্থিক ভাবে যাঁরা শক্তিশালী, তাঁরা  নিজেদের কার্ড প্রত্যার্পণ করতে পারেন। তা হলে বাজার থেকে কেনার ক্রয়ক্ষমতা নেই, এমন মানুষ আরও বেশি করে খাদ্য সুরক্ষার আওতায় আসতে পারবেন”, জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী

মন্ত্রী জানান, পশ্চিমবঙ্গের প্রায় সাড়ে আট কোটি মানুষ মুখ্যমন্ত্রীর খাদ্যসাথী প্রকল্পের আওতায় নিয়মিত ২ টাকা কেজি দরে চাল ও গম পাচ্ছেন।

আরও পড়ুন: বিএড বিশ্ববিদ্যালয় চালু করছে নতুন ৬টি বিভাগ, শিক্ষক নিয়োগ শীঘ্রই

উল্লেখ্য, গত ২০১৫ সালে উচ্চবিত্তশ্রেণীর এলপিজি গ্রাহকের কাছে ভরতুকি ছেড়ে দেওয়ার আবেদন জানিয়ে সুফল পেয়েছে কেন্দ্র। ধারণা করা হচ্ছে, রাজ্যের এই প্রকল্পও যথেষ্ট কার্যকরী ভূমিকা নিতে চলেছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here