ওয়েবডেস্ক: মঙ্গলবার দলীয় কাউন্সিলারদের নিয়ে বৈঠকে বসেছিলেন তৃণমূলনেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এ দিন তিনি প্রকাশ্যে দলীয় কাউন্সিলারদের জোর ধমক দেন। বলেন, “কেউ টাকা নিয়ে থাকলে ফেরত দিন, নচেত তদন্তের মুখোমুখি হতে হবে”।

মমতা এ দিন জানান, “রাজ্য সরকার দুর্নীতি দমনে নতুন পরিকাঠামো তৈরি করছে। ফলে সরকারি প্রকল্পের টাকা নয়ছয় করলে বা নিয়ম বহির্ভূত কাজে জড়িত থাকলে কাউন্সিলারদেরও তদন্তের মুখোমুখি হতে হবে”।

লোকসভা ভোটের পর সিঙ্গুরে গিয়েও একই ভাবে মমতা অভিযোগ করেছিলেন, দলের কোনো কোনো নেতা কাটমানি নেন। যে কারণে সাধারণ মানুষের কাছে দলের ভাবমূর্তি নষ্ঠ হচ্ছে। প্রভাব পড়ছে ভোটের বাক্সেও। এ দিন আরও চড়া সুরে তিনি বলেন, “সাধারণ মানুষের টাকা নিয়ে খাকলে এখনই ফেরত দিন। তিনি দাবি করেন, তাঁর কাছে খবর রয়েছে, কোনো কোনো কাউন্সিলার সরকারি প্রকল্পের টাকাতেও ভাগ বসাচ্ছেন”।

তিনি বলেন, “সমব্যথী প্রকল্পে দু’হাজার টাকা করে দেন কাউন্সিলাররা। কিন্তু সেখান থেকে দু’শো টাকা নিয়ে নেওয়া হচ্ছে কোথাও কোথাও। আবার বাংলার বাড়ি প্রকল্প থেকেও ২০ শতাংশ টাকা সরিয়ে ফেলা হচ্ছে। কোথাও কোথাও কাউন্সিলাররা সরকারি জমি নিজের পরিবারের নামে করিয়ে নিচ্ছেন। এ রকম চলতে পারে না”।

পাশাপাশি বর্তমানে পুরসভার কাউন্সিলারদের দলবদলের হিড়িকের কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে তিনি বলেন, “দুর্নীতি করলে দলবদল করেও রেহাই পাবেন না”।

প্রসঙ্গত, এ দিনের বৈঠকে আগামী বছরের গোড়ার দিকে পুরসভা ভোটে টিকিট বণ্টন নিয়েও বিশেষ নির্দেশ দেন দলনেত্রী।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here