কলকাতা: শিয়ালদহ মেট্রোর উদ্বোধন ঘিরে রাজনৈতিক চাপানউতোর। প্রশ্ন ওঠে, স্মৃতি ইরানির হাত ধরে কেন হবে উদ্বোধন? কেন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আমন্ত্রণ জানানো হবে না?

এমন সব প্রশ্নে পাল্টা জবাবও দিয়েছিল বিজেপি। তবে এ বার এই কাদা ছোঁড়াছুড়িতে প্রলেপ দিতে আসরে নামলেন কলকাতা মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষ। জানানো হল, সোমবার বিকেল ৫টায় ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর এই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হচ্ছে মুখ্যমন্ত্রীকে। রবিবারই তাঁর কাছে আমন্ত্রণপত্র পৌঁছে দেওয়া হবে।

পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক একালব্য চক্রবর্তী জানান, ‘‘মেট্রোর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী ছাড়াও কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম, কলকাতা উত্তরের সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, হাওড়ার সাংসদ প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়, বেলেঘাটার বিধায়ক পরেশ পাল, মন্ত্রী অরূপ রায়-সহ এলাকার সাংসদ-বিধায়ককেও আমন্ত্রণ পাঠানো হচ্ছে।’’

শিয়ালদহ মেট্রো স্টেশন। ছবি: রাজীব বসু

তিনি আরও বলেন, ‘‘রেলের নিয়মানুযায়ী কোনো রাজ্যে কোনো রেল প্রকল্পের উদ্বোধন হলে মুখ্যমন্ত্রীর পাশাপাশি, স্থানীয় নির্বাচিত প্রতিনিধিকে আমন্ত্রণ জানানো বাধ্যতামূলক। সেই নিয়ম মেনেই সবাইকে তাঁদের বাড়িতে আমন্ত্রণপত্র পাঠানো হবে।’’

এছাড়াও আমন্ত্রণপত্র পাঠানো হচ্ছে রাজ্যপাল জগদীপ ধনকরকেও। রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতে, অসৌজন্যের রাজনীতি বিতর্ককে ধামাচাপা দিতেই যেন এই পদক্ষেপ রেলের। তবে আগামীকাল দুপুরেই উত্তরবঙ্গ রওনা দেওয়ার কথা মুখ্যমন্ত্রীর। ফলে বিকেলে মেট্রোর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি থাকবেন কি না, সেটা স্পষ্ট নয়। এ ছাড়াও মেয়র ফিরহাদ বা তৃণমূলের সাংসদ-বিধায়করা এই অনুষ্ঠানে যোগ দেন কি না, সেটাও দেখার!

আরও পড়তে পারেন:

এক সঙ্গে ৭৩ লক্ষেরও বেশি সুবিধাভোগীকে পেনশন, শীঘ্রই কেন্দ্রীয় ব্যবস্থা আনছে ইপিএফও

বিড়লা তারামণ্ডলের সামনে দুর্ঘটনা, বাসের ধাক্কায় জখম ২ পথচারী

বৈঠকে নেই গোয়ার ৩ কংগ্রেস বিধায়ক, বিজেপি-র সঙ্গে যোগাযোগ কয়েক জনের

বাবুল সুপ্রিয়কে বড়ো দায়িত্ব দিল তৃণমূল

আচমকা হাসপাতালে ভর্তি সুজিত বসু, কী এমন হল মন্ত্রীর

জোড়া ইস্যুতে বৈঠকে বসছে এনডিএ, থাকতে পারেন প্রধানমন্ত্রী মোদী

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন