কলকাতা: শুক্রবার সকাল ৬টা নাগাদ হুগলির দাদপুরে পথ দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন রাজ্য সশস্ত্র পুলিশের ১২ ব্যাটালিয়নের কমান্ডান্ট দেবশ্রী চট্টোপাধ্যায়। কলকাতা পুলিশের ইতিহাসে তিনিই ছিলেন থানার প্রথম মহিলা ওসি।

ওই পথ দুর্ঘটনায় একই সঙ্গে মৃত্যু হয়েছে তাঁর গাড়িচালক ও নিরাপত্তারক্ষীরও। বৃহস্পতিবার রাতে শিলিগুড়ির ডাবগ্রামে ব্যাটালিয়নের সদর দফতর থেকে কলকাতার পর্ণশ্রী এলাকায় তাঁর নিজের বাড়িতে ফিরছিলেন দেবশ্রী।

মুখ্যমন্ত্রীর শোকবার্তা

“কলকাতা পুলিশের ডেপুটি কমিশনার দেবশ্রী চট্টোপাধ্যায়ের মৃত্যুতে আমি গভীর শোক প্রকাশ করছি। তিনি আজ হুগলির দাদপুরে এক পথ দুর্ঘটনায় প্রাণ হারান। বয়স হয়েছিল ৪৫ বছর।

দক্ষ এই পুলিশ আধিকারিক পরিশ্রম ও নিষ্ঠার গুণে ডেপুটি কমিশনার পর্যায়ে উন্নীত হন। রাজ্য পুলিশেও তিনি কর্মকৃতির স্বাক্ষর রাখেন। মানবপাচার রোধে উল্লেখযোগ্য অবদানের জন্য তিনি আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পান।

তাঁর মৃত্যুতে আমরা এক দক্ষ পুলিশ অফিসারকে হারালাম।

আমি দেবশ্রী চট্টোপাধ্যায়ের পরিবার-পরিজন ও অনুরাগীদের আমার আন্তরিক সমবেদনা জানাচ্ছি”।

কী ভাবে দুর্ঘটনা?

ঘটনায় প্রকাশ, দাদপুরের কাছে দুর্গাপুর এক্সপ্রেসওয়েতে দেবশ্রীর গাড়িটি দাঁড়িয়ে থাকা একটি বালির ট্রাকে ধাক্কা মারে। সঙ্গে দুমড়ে মুচড়ে যায় গাড়িটি।  দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ। সেখান থেকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হল দেবশ্রী চট্টোপাধ্যায়, তাঁর নিরাপত্তারক্ষী তাপস বর্মণ এবং গাড়িচালক মনোজ সাহাকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।

প্রাথমিক অনুমান, অতিরিক্ত গতির শিকার হয়েই এই দুর্ঘটনা ঘটে। তবে গাড়িটি গতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে না পেরে দুর্ঘটনার শিকার হল, না কি অন্য কোনো কারণ রয়েছে, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। নমুনা সংগ্রহ করতে ফরেন্সিক দল পাঠানো হচ্ছে বলে জানা যায়।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন