mamata banerjee cooch behar
কোচবিহারে মুখ্যমন্ত্রী। ছবি: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (টুইটার)

কোচবিহার: “ওরা যাকে তাড়াবে, বাংলা তাকেই আশ্রয় দেবে।” নাগরিকপঞ্জি প্রসঙ্গে নাম না করে বিজেপির বিরুদ্ধে এ ভাবেই তীব্র তোপ দাগলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পাশাপাশি অসমের ঠিক পাশেই কোচবিহারে দাঁড়িয়ে নাগরিকপঞ্জি নিয়ে নিজের অবস্থান আবার পরিষ্কার করে দিলেন তিনি।

মঙ্গলবার দুপুরে কোচবিহারের এক জনসভায় মুখ্যমন্ত্রী বললেন, “অসমে নাগরিকপঞ্জির আতঙ্কে মানুষ তাঁদের মর্যাদা হারাচ্ছেন।স্ত্রী, ছেলে, মেয়ের নাম থাকলেও স্বামীর নাম নেই। আত্মমর্যাদা হারিয়ে তাই অসমে মানুষ এখন আত্মহত্যা করছেন।” শুধু অসমের নাগরিকপঞ্জি প্রসঙ্গই নয়, গুজরাত থেকে বিহারের বাসিন্দাদের তাড়িয়ে দেওয়ার প্রসঙ্গও তোলেন তিনি।

আরও পড়ুন তিন দিনের মধ্যে অর্ডিন্যান্স জারি করে ছিটমহলবাসীর হাতে জমির অধিকার তুলে দেওয়ার নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর

এ রাজ্যে যে এ রকম ঘটনা কখনও ঘটবে না, সে কথা উল্লেখ করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “ওরা যাদের তাড়াবে, তাদের আশ্রয় দেবে বাংলা। ওরা মাথা উঁচু করে মর্যাদা নিয়ে বাঁচবে বাংলায়।”

সরকারি অনুদান প্রকল্প ঘোষণার পাশাপাশি একাধিক পরিষেবা প্রদান ও শিলান্যাস অনুষ্ঠান ছিল কোচবিহারে। সেই সভা থেকেই কেন্দ্রকে নিশানা করেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি আরও বলেন, “বাংলাকে অসমের মতো হতে দেব না। ৪০ লক্ষ মানুষের নাম বাদ চলে গিয়েছে এনআরসির জন্য। অসমে বাঙালি খেদাও আর গুজরাতে গিয়ে বিহারি খেদাও, এই তো চলছে।”’

আরও পড়ুন বাংলা গান গাওয়ার জন্যই কি গুয়াহাটিতে আক্রান্ত হলেন শান?

বিজেপির বিরুদ্ধে বিভেদের রাজনীতি নিয়েও ফের এ দিন সরব হয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। বলেছেন, “মারামারি, রক্তারক্তি করে মানুষের মধ্যে বিভেদ তৈরি করে বাঁচা যায় না। সকলকে একসঙ্গে নিয়ে চলতে হয়।” পাশাপাশি ‘বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও’ নিয়েও কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন মমতা। কেন্দ্র যদি টাকাই না দেয়, তা হলে তাদের প্রকল্প কী ভাবে বাস্তবের আলো দেখবে সে প্রশ্নও তোলেন মমতা।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here