জল্পনার অবসান। তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিলেন সবংয়ের বিধায়ক মানস ভুঁইয়া। সোমবার বিকেলে তৃণমূল ভবনে তাঁর হাতে দলের পতাকা তুলে দেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়, মুকুল রায় ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তৃণমূলে যোগ দিলেন মহম্মদ সোহরাবও।

আগেই কংগ্রেস ছাড়ার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন মানসবাবু। কয়েকদিন আগেই দল ছাড়ার জল্পনা উস্‌কে বলেছেন, ‘দলে থেকে আর দলের কাজ করা যাবে কি না ভাবতে শুরু করেছি’। তবে সিপিআইএম বা বিজেপি-তে যাবেন না বলেও জানিয়েছিলেন। এদিন সব জল্পনাকে সত্যি করে তৃণমূলে যোগ দিলেন মানসবাবু।

এর আগে বিধানসভার পাবলিক অ্যাকাউন্টস কমিটির চেয়ারম্যান পদ নিয়ে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী ও বিধানসভার বিরোধী দলনেতা আবদুল মান্নানের সঙ্গে দূরত্ব তৈরি হয় সবংয়ের বিধায়কের। এরপর তাঁদের মধ্যে বিরোধ বার বার প্রকাশ্যে এসেছে। একে অপরকে আক্রমণ করতেও ছাড়েননি। সঙ্গে একাধিকবার রাজ্য সরকার ও মুখ্যমন্ত্রীর প্রশংসাও শোনা গেছে মানসবাবুর গলায়। আর গত সপ্তাহে বিধানসভায় ঘর পাওয়ার পর তাঁর দল ছাড়া কার্যত স্পষ্ট হয়ে যায়।

এছাড়াও তৃণমূলে যোগ দিলেন মহম্মদ সোহরাব, খালেক আবদুল্লা, অজয় ঘোষ, অসিত মজুমদার, মনোজ পান্ডে, কনক দেবনাথ ছাড়াও একাধিক কংগ্রেস নেতা।

 ৪৬ বছর ধরে কংগ্রেসি রাজনীতি করার পর এদিন সাংবাদিক বৈঠকে মানস বলেন, ‘উন্নয়ন দেখেই তৃণমূলে যোগ দিলাম ৷ আমার মন বিবেক সবই তৃণমূলের ৷ আমি মাসে চার বার হাই কমান্ডের সঙ্গে যোগাযোগ করতাম ৷ মাঝখানে কালো পাহাড় ছিল সিপি জোশি ৷ তিনিই পথের কাঁটা, আমি আসল কংগ্রেসের ঠিক জায়গা নিলাম ৷ নির্বাচনের একদিন আগে সবংয়ের জয়দেব সাহা নামে এক তৃণমূল কর্মী খুনে জড়িয়েছিল মানসের নাম ৷ সে সম্পর্কে এদিন প্রশ্ন করা হলে সবংয়ের বিধায়ক বলেন, ‘আইন আইনের পথে চলবে ৷ এই নিয়ে পৃথক কোনও বক্তব্য রাখব না ৷ বিরোধিতা মানে প্রতিহিংসা নয় ৷ আমি এখন তৃণমূল কর্মী ৷ রাজনীতিতে প্রতিহিংসা থাকে না ৷’

শুধু মানসই নন, এদিন তৃণমূলে যোগ দেন একাধিক কংগ্রেস নেতা ৷ জোড়াফুলে যোগ দিয়ে মহম্মদ সোহরাব বলেন, ‘ সিপিআইএম-এর দিকে গিয়ে কংগ্রেস আদর্শ হারিয়েছে ৷ মমতার আদর্শের সঙ্গে আমার আদর্শের মিল আছে ৷ তাই তৃণমূলে যোগ দিলাম ৷ তৃণমূলে অভ্যর্থনা জানিয়ে মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘অবশেষে প্রতীক্ষার অবসান ৷ আজ একটি স্মরণীয় দিন ৷ প্রদেশ কংগ্রেসের বড়সড় ভাঙন ৷ পড়ে রইলেন আর ২ জনই ৷ বিধানসভায় কংগ্রেসের কাউকে খুঁজে পাব না ৷ আদর্শহীন কংগ্রেস, আজ তা আরও প্রমাণ হল’ ৷

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here