কলকাতা পুরসভার কর্মীরা বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে মশার লার্ভা খুজে বেড়াবে আর শহরের শিক্ষিত ভদ্র সমাজ বাড়িতে ঘুমাবে। তাদের মধ্যে সেই সচেতনতা হবে না। আজ প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে পরিদর্শনে গিয়ে শহরের শিক্ষিত সমাজকে এ ভাবেই আক্রমণ করলেন স্বাস্থ্য বিভাগের মেয়র পারিষদ অতীন ঘোষ। অতীনবাবুর দাবি, কলকাতা পুরসভার স্বাস্থ্য বিভাগ যে ভাবে শহরের বিভিন্ন এলাকা পরির্দশন করছে ভারতবর্ষের কোনও পুরসভা যদি সেই কাজ করে তা হলে তিনি মেয়র পারিষদের পদ থেকে ইস্তফা দেবেন। পর পর ২ বছর কলকাতা প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মীদের প্রশিক্ষণ দেওয়া সত্বেও বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে এডিস মোশার লার্ভা পাওয়া গিয়েছে। এ নিয়ে শুক্রবার ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি।

এ দিন প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যম্পাসে একাধিক জায়গায় এডিস মশার লার্ভা পাওয়া গিয়েছে। প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্টার্ফ কোয়ার্টারে, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাদের খোলা ট্যাঙ্কে, বেকার লাইব্রেরির জমা জলেও মশার লার্ভা পাওয়া গিয়েছে। প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয় পরিদর্শন করতে গিয়ে এদিন অতীনবাবু বলেন, অভিজাত স্কুল-কলেজগুলির সচেতনতার অভাব রয়েছে। তারা ডেঙ্গির লার্ভা সম্পর্কে সচেতন নয়। শিক্ষিত সমাজের কাছে যে সচেতনতা পাওয়ার আশা করেছিলাম সেটা পেলাম না। এদিন তিনি আরও বলেন বস্তি এলাকায় আমরা পরির্দশনে গিয়ে কিন্তু মশার লার্ভা পাইনি। সেখানে শহরের অভিজাত এলাকাগুলি থেকে ডেঙ্গির লার্ভা পাওয়া যাচ্ছে।

এদকে রাজ্যে ডেঙ্গি আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৬৪৩। ডেঙ্গিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ২০৫ জন। স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে এই খবর জানা গিয়েছে। এখনও পর্যন্ত সরকারি ভাবে ডেঙ্গিতে মৃতের সংখ্যা ১৭।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here