জোর বৃষ্টি সঙ্গে নিয়ে বঙ্গে এল বর্ষা

0
ফাইল ছবি

খবরঅনলাইন ডেস্ক: বৃহস্পতিবার থেকে প্রবল বৃষ্টি হচ্ছে উত্তরবঙ্গে। শুক্রবার সকাল থেকে দক্ষিণবঙ্গেও বৃষ্টির দাপট অনেকটাই বেড়েছে। এই বৃষ্টিকে সঙ্গী করেই পশ্চিমবঙ্গে ঢুকে গেল বর্ষা।

শুক্রবার দুপুরের বুলেটিনে বর্ষার আগমনের খবর ঘোষণা করে দিয়েছে আবহাওয়া দফতর। এক সঙ্গে উত্তরবঙ্গ আর দক্ষিণবঙ্গে বর্ষার ঢুকে পড়ার ঘটনা খুবই বিরল।

সাধারণ উত্তরবঙ্গে বর্ষা পৌঁছোনোর তিন দিন পরে দক্ষিণবঙ্গে বর্ষা ঢোকে। কিন্তু এ বার এক সঙ্গে রাজ্যের দুই প্রান্তেই বর্ষা পৌঁছোল। আবহাওয়া দফতরের নতুন সূচি অনুযায়ী এখন উত্তরবঙ্গে বর্ষা ঢোকার কথা ৮ জুন আর দক্ষিণে ১১ জুন। ফলে এ বার উত্তরবঙ্গে স্বাভাবিকের থেকে চার দিন আর দক্ষিণবঙ্গে স্বাভাবিকের এক দিন পর বর্ষা ঢুকল।

amazon

তবে এখনও রাজ্যের কিছু অঞ্চলে বর্ষার পৌঁছোনো বাকি রয়েছে। পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলিতে দক্ষিণপশ্চিম মৌসুমি বায়ু এখনও প্রবেশ করেনি। তবে আগামী ২৪ ঘণ্টায় সেই অঞ্চলেও বর্ষা ঢুকে যাবে বলে মনে করা হচ্ছে, কারণ বঙ্গোপসাগরের নিম্নচাপের কারণে বৃষ্টি শুরু হয়েছে ওই সব অঞ্চলেও।

উল্লেখ্য, বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া নিম্নচাপের কারণে শুক্রবার সকালে বেশ কয়েক দফা ভারী বৃষ্টি হয়েছে দক্ষিণবঙ্গের বিস্তীর্ণ অঞ্চলে। বৃষ্টির দাপটে কলকাতার বেশ কিছু অঞ্চলে জল জমে যায়।

উত্তরবঙ্গে বৃষ্টির দাপট অনেকটাই বেশি। গত ২৪ ঘণ্টায় দার্জিলিং আর জলপাইগুড়ির জেলার বেশি কিছু জায়গায় অতি ভারী বৃষ্টি হয়েছে। জলপাইগুড়ি শহরে ১৩০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়। উত্তরবঙ্গে সব জেলাতেই আগামী বেশ কয়েক দিন ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সতর্কতা দেওয়া হয়েছে। অন্য দিকে কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের সব জেলায় আগামী ৪৮ ঘণ্টা ভারী বৃষ্টি হতে পারে।

গত কয়েক বছরে দেখা গিয়েছে যে বর্ষার আগমনের সময়ে উত্তরবঙ্গে ভালো বৃষ্টি হলেও, দক্ষিণবঙ্গে খুব একটা বৃষ্টি হয় না। বৃষ্টিহীন অবস্থার মধ্যে কিছুটা অজান্তেই বর্ষার আগমন ঘটে যায়। কিন্তু এ বার পরিস্থিতি একেবারেই অন্য রকম। বলা যেতে পারে যে এক্কেবারে ছক্কা হাঁকিয়েই বর্ষা ঢুকল রাজ্যে।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন