মমতার ‘সুপার এমার্জেন্সি’ মন্তব্য প্রসঙ্গে ‘মানসিক’ খোঁচা মুকুলের

0
Mukul Roy and Mamata Banerjee
প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: ১৯৭৫ সালে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর জরুরি অবস্থা জারি নিয়ে তৃণমূল-বিজেপি বিতর্কে নতুন ইন্ধন যোগ করলেন মুকুল রায়। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের “সুপার এমার্জেন্সি” মন্তব্যের পাল্টা দিতে গিয়ে তিনি টেনে নিয়ে এলেন মানসিক ভারসাম্যের প্রসঙ্গ।

৪৪ বছর আগে ২৫ জুন দেশে জারি হয়েছিল জরুরি অবস্থা। যা জারি ছিল প্রায় ২১ মাস। সে প্রসঙ্গ টেনেই মমতা এ দিন টুইটারে লিখেছেন, “গত পাঁচ বছর দেশে ‘সুপার এমার্জেন্সি’ চলেছে। ইতিহাস থেকে শিক্ষা নিয়ে দেশের স্বশাসিত প্রতিষ্ঠানগুলিকে বাঁচানোর জন্য লড়াই চালাতে হবে।”

মমতা এমন মন্তব্যের পর বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয় বলেন, “পশ্চিমবঙ্গে জরুরি অবস্থার থেকে ভয়ানক পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে”।

এ দিনই বাঁকুড়ার সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজে ও হাসপাতালে আহতদের দেখতে যান বিজেপি নেতা মুকুল রায়। সেখানে সাংবাদিকদের কাছে পেয়ে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন তিনি। বলেন, “রাজ্যে অঘোষিত জরুরি অবস্থা চলছে”।

একই সঙ্গে তিনি বলেন, “একটা লোকসভা ভোটে হেরে গিয়েই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেছেন। ভোটের ফল প্রকাশের পরই রাজ্যে আইনশৃঙ্খলা ভেঙে পড়েছে। কয়েক বছর আগেই বিপুল জনমত নিয়ে ক্ষমতায় এসেছিলেন মমতা। আর এখন সেই সরকারই টলমল করছে”।

প্রসঙ্গত, এ দিন লোকসভায় ভাষণ দিতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও তুলে ধরেন জরুরি অবস্থার দিনগুলির কথা। তিনি বলেন, “সেটা ছিল ভারতীয় গণতন্ত্রের একটা গাঢ় কলঙ্কজনক অধ্যায়। যা কখনোই ধূসর হবে না। আমরা কখনোই সেই কালো দিনগুলোকে ভুলব না”।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.