mamata-mukul

কলকাতা: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের চিন সফরের কয়েক ঘণ্টা আগে তা বাতিল হওয়ায় অভিযোগের আঙুল উঠেছে কেন্দ্রীয় বিদেশ মন্ত্রকের দিকে। কারণ বিদেশমন্ত্রীর আবেদনে সায় দিয়েই তাঁর চিন সফরের নির্ঘণ্ট নির্ধারিত হয়। পরে মমতার ওই সফর নিয়ে চিন আগ্রহ দেখালেও কেন্দ্রীয় মন্ত্রক কোনো উদ্যোগ নেয়নি।  এর পরই বাতিল হয়েছে মমতার শিকাগো সফরও। সেখানেই মৃদু ইঙ্গিত রয়েছে কেন্দ্রের শাসক দল বিজেপির অঙ্গুলি হেলনের। তবুও তাঁর বিদেশ সফরকে কেন্দ্র করে তৃণমূলত্য়াগী বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের ভাষা-আক্রমণে বিরাম নেই।

মুকুলবাবুর অভিযোগ, “মমতা প্রায়শই বিদেশে যান। পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী প্রয়াত জ্যোতি বসুও ঘনঘন বিদেশে যেতেন। তখন আমরা বলতাম শিল্পপতি আনার নামে বিদেশভ্রমণ করছেন তিনি। মমতাও একই অভ্যাস করে ফেলেছেন”।

এখানেই থেমে না থেকে আক্রমণের সুর চড়িয়ে মুকুলবাবুর দাবি, “এর আগেও মমতা একাধিক বার বিদেশে গিয়েছেন। উনি শ্বেতপত্র প্রকাশ করে বলুন, কোন কোন শিল্প এ রাজ্যে নিয়ে এসেছেন। বিদেশি উদ্যোগপতিরা কত টাকা বিনিয়োগ করেছেন, কোন প্রকল্প কত দূর এগিয়েছে, সে সব বিষয় ওই শ্বেতপত্রের মাধ্যমে প্রকাশ করুন। এর ফলে বাংলার মানুষই উপকৃত হবেন। তা না হলে ধরে নিতে হবে এই বিদেশ সফরের কোনো মূল্য নেই। আসলে উনি যদি বিদেশে কোনো শিল্পপতিকে ধরতে যান, দেখা যাবে সেই শিল্পপতির সঙ্গে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যেরও সম্পর্ক রয়েছে”।

এ ব্যাপারে দলীয় ভাবে প্রতিবাদ না করলেও এক তৃণমূল নেতা বলেন, “মুখ্যমন্ত্রীর হাতে গোনা কয়েকটা বিদেশ সফরের জন্য বিজেপি শ্বেতপত্র প্রকাশের দাবি তুলছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তো চার বছরের বেশির ভাগ সময়টা বিদেশেই কাটিয়ে দিলেন, তাঁকে বলার ক্ষমতা আছে”?

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here