মুকুলের বিধায়কপদ খারিজের আবেদনে চার মিনিটেই প্রথম শুনানি শেষ, আদালতে যেতে পারে বিজেপি

0
Suvendu Adhikari and Mukul Roy
শুভেন্দু অধিকারী, মুকুল রায়। প্রতিনিধিত্বমূলক ছবি

খবর অনলাইন ডেস্ক: দলবদল করে কৃষ্ণনগর উত্তরের বিজেপি বিধায়ক মুকুল রায় (Mukul Roy) এখন তৃণমূলে। দলত্যাগ বিরোধী আইনে তাঁর বিধায়কপদ খারিজের আবেদন নিয়ে শুক্রবার শুনানি শুরু হচ্ছে বিধানসভায়। বেলা ২টো নাগাদ বিধানসভার স্পিকারের ঘরে পৌঁছোন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)।

পাবলিক অ্যাকাউন্টস কমিটি (PAC)-র চেয়ারম্যান পদে মুকুল রায়কে নির্বাচিত করার পর থেকেই, বিরোধিতায় নেমেছে বিজেপি। ইতিমধ্যেই মঙ্গলবার বিজেপি পরিষদীয় দল মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে স্মারকলিপি জমা দিয়েছে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের কাছে। আবেদন জানানো হয়েছে স্পিকারের কাছেও। প্রতিবাদে বিধানসভার ৮টি স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যানের পদ ছেড়ে দিয়েছেন বিজেপি বিধায়কেরা। পাশাপাশি জানিয়েছেন, তাঁরা মুকুল-ইস্যুতে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দেরও দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চলেছেন।

দলত্যাগ বিরোধী আইনে মুকুলের বিধায়কপদ খারিজ করার জন্য স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Biman Banerjee) কাছে পিটিশন জমা দিয়েছে বিজেপি। দলত্যাগ বিরোধী আইন অনুযায়ী মুকুলের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করেছেন শুভেন্দু। জমা দেওয়া হয়েছে বিভিন্ন তথ্যপ্রমাণ। তা নিয়েই হওয়ার কথা শুনানির। তবে এই শুনানিতে মুকুল ছিলেন না।

এ দিন প্রথম শুনানি শেষ হয় চার মিনিটের মধ্যেই। স্পিকারের ঘর থেকে বেরিয়ে আসেন শুভেন্দু। পরবর্তী শুনানি আগামী ৩০ জুলাই। তবে বিজেপির একটি সূত্রের দাবি, আর সময় নষ্ট না করে এ বারে আদালতে যেতে পারে গেরুয়া শিবির।

আরও পড়তে পারেন: এখনই রাজ্যের ৭ কেন্দ্রে ভোট চাইছেন না শুভেন্দু অধিকারী, কেন?

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন