বিধানসভায় গিয়ে মমতার উদ্দেশে অদ্ভুত-প্রস্তাব মুকুলের

0
mukul roy and mamata banerjee
দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস থেকে ফাইল ছবি

ওয়েবডেস্ক: ভিতরে তখন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিধানসভার বাইরে দাঁড়িয়ে সাংবাদিকদের সামনে তাঁকেই উদ্দেশ্য করে অদ্ভুত-প্রস্তাব পাড়লেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়।

গত লোকসভা ভোটের আগে থেকেই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন তৃণমূলের বেশ কয়েকজন হেভিওয়েট নেতা। সেই দলবদলের প্রক্রিয়া এখনও সমানে অব্যাহত। সম্প্রতি তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন এক সময়ে মমতার স্নেহধন্য কলকাতার প্রাক্তন মেয়র তথা রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী শোভন চট্টোপাধ্যায়। তাঁর দলবদলের সঙ্গেই তৃণমূল বিধায়ক দেবশ্রী রায়ও পা বাড়িয়ে রয়েছেন বিজেপিতে। মুকুল-সহ বিজেপি নেতৃত্বের দাবি, এ ভাবেই অসংখ্য তৃণমূল নেতা গেরুয়া শিবিরে প্রবেশের প্রহর গুনছেন।

এ প্রসঙ্গেই মুকুল বলেন, “পার্টির নীতি, আদর্শ মেনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও যদি বলেন, আমি ভারতীয় জনতা পার্টি করব। তা হলে আমার ধারণা, কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব তাঁকে সমর্থন করবেন”।

এর পরই যথারীতি জল্পনা ছড়ায়। সাংবাদিকরা তাঁর কাছে জানতে চান, রাজ্য রাজনীতিতে যিনি তাঁদের মূল প্রতিপক্ষ, তাঁর উদ্দেশে কী ভাবে বিজেপিতে যোগদানের প্রস্তাব রাখছেন? কিন্তু দলের নীতি-আদর্শের কথার পুনরাবৃত্তি করে মুকুল সেই প্রশ্নের উত্তর এড়িয়ে যান।

মুকুল এ দিন বলেন, “এই সরকার কত দিন টেকে, সেটাই দেখুন। খোঁজ নিয়ে দেখুন, তৃণমূলের কত নেতা-মন্ত্রী বিজেপির সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন”? তিনি বলেন, “যাঁরা বিজেপিতে আসতে চান, তাঁদের স্বাগত”।

স্বাভাবিক ভাবেই মমতার উদ্দেশে মুকুলের প্রস্তাব নিছক রাজনৈতিক চমক না কি এর নেপথ্যে অন্য কোনো সমীকরণ কাজ করছে, তা নিয়েই কাটাছেঁড়া শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলে। যদিও অনেকেই মুকুলের এ ধরনের প্রস্তাবকে ‘অদ্ভুত’ আখ্যা দিয়েছেন।

------------------------------------------------
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.