Mukul Roy And Satyajit Biswas
মুকুল রায় এবং সত্যজিৎ বিশ্বাস। গ্রাফিক্স ছবি

কলকাতা: নদিয়ার কৃষ্ণগঞ্জের বিধায়ক সত্যজিৎ বিশ্বাস খুনের ঘটনায় হাইকোর্টে আগাম জামিনের আবেদন জানালেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়।

বৃহস্পতিবার  শুনানির সম্ভাবনা বিচারপতি জয়মাল্য বাগচীর ও বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় ডিভিশন বেঞ্চে।

সত্যজিৎবাবুকে চিনলেও এই খুনের সঙ্গে তাঁর কোনো সম্পর্ক নেই বলেই দাবি করেন মুকুল। তাঁর কথায়, “ঘটনাস্থলে সে দিন আমি ছিলামই না। কী ভাবে আমার নাম তাতে জড়িয়ে গেল? এটা চক্রান্ত।”

আরও পড়ুন ‘অম্বানির হয়ে দালালি করছেন দেশদ্রোহী মোদী,’ রাফাল নিয়ে ফের সুর চড়ালেন রাহুল

উল্লেখ্য, গত শনিবার নদিয়ার হাঁসখালিতে সরস্বতী পুজোর প্যান্ডেল উদ্বোধন করতে গিয়েছিলেন কৃষ্ণগঞ্জের বিধায়ক  সত্যজিৎবাবু। সেখানেই গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু হয় তাঁর। ঘটনায় কেটে গিয়েছে দু’দিন। কে বা কারা এই হত্যাকাণ্ড ঘটাল, কেনই বা এই হত্যা সে সম্পর্কে কোনো সূত্রই এখনও মেলেনি।

শুরু থেকেই এই ঘটনার পেছনে মুকুল রায়ের হাত রয়েছে বলে দাবি করছিলেন তৃণমূল নেতারা। এর পরেই মুকুলের বিরুদ্ধে এফআইআরও হয়।

সোমবার সত্যজিতের পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সে দিন নাম না করে অভিষেক বলেন, “ঘাড় ধরে প্রত্যেক অভিযুক্তকে জেলে ঢোকাব।  দিল্লির নেতাদের পাজামা ধরে রেখেও পার পাবেন না কেউ। প্রত্যেক অভিযুক্তকে শাস্তি পেতে হবে।”

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here