‘আমিই মেরেছি…ওর বাবা-মা মানসিক ভাবে হেনস্থা করত’, সুতপা খুনের কথা প্রকাশ্যে কবুল সুশান্তর

0

বহরমপুরে ছাত্রী খুনের কথা প্রকাশ্যে কবুল করল অভিযুক্ত। মৃত ছাত্রীর পরিবারের বিরুদ্ধে পাল্টা উত্যক্ত করার অভিযোগ তুলে একই সঙ্গে জানিয়ে দিল, “আইন যা সাজা দেবে, তা মানতে রাজি”।

“মেয়ের মা-বাবা আমাকে মানসিক ভাবে হেনস্থা করত…হ্যাঁ, আমিই মেরেছি”। শনিবার আদালত থেকে জেল হেফাজতে যাওয়ার পথে প্রিজন ভ্যানে বসে এমনই স্বীকারোক্তি সুতপা চৌধুরী খুনে অভিযুক্ত সুশান্ত চৌধুরীর।

এ দিন আদালতে তোলা হলে সুশান্তকে দু’দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়। প্রিজন ভ্যানে তোলার সময় অবলীলায় খুনের কথা শিকার করে সুশান্ত বলে, “হ্যাঁ, আমিই খুন করেছি। মেয়ের মা ও বাবা আমাকে মানসিকভাবে হেনস্থা করছিল। তাই আমি খুন করেছি। আইন আমাকে যে শাস্তি দেবে তা মাথা পেতে নেব”।

ইতিমধ্যেই সুশান্ত অভিযোগ করেছে, সুতপার বাবা স্বাধীন চৌধুরী লোক দিয়ে তাকে একাধিক বার হুমকি দিয়েছিলেন। এমনকী মারধরও করা হয়। এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে মালদহে তদন্তে গিয়ে সুতপার বাবার সঙ্গেও কথা বলে পুলিশ। স্বাধীনবাবুর দাবি, ২০১৭ সাল থেকে তাঁদের মেয়েকে নিয়মিত উত্যক্ত করত সুশান্ত। যে কারণে থানাতেও যান তিনি। তার পরেও থামেনি সুশান্ত। তবে তিনি আর থানায় যাননি।

গত ২ মে সুতপাকে মেস থেকে ডেকে গেটের মুখেই নৃশংস ভাবে খুন করে তাঁর প্রেমিক সুশান্ত। প্রকাশ্যে খুনের পর নকল আগ্নেয়াস্ত্র উঁচিয়েই এলাকা ছাড়ে অভিযুক্ত। তবে পুলিশি তৎপরতায় জেলা জুড়ে নাকা চেকিংয়ে তিন ঘণ্টার মধ্যেই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়। তার পর উঠে আসে একের পর এক চাঞ্চল্যকর তথ্য। এ বার প্রকাশ্যেই সুশান্ত স্বীকার করে নিল, সেই খুন করেছে সুতপাকে।

আরও পড়তে পারেন: 

ত্রিপুরায় মুখ্যমন্ত্রী বদল হতেই বিজেপিতে অসন্তোষ, চেয়ার ভেঙে হাতাহাতিতে জড়ালেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, দেখুন ভিডিয়োয়

বিপ্লব দেবকে সরিয়ে ত্রিপুরার নতুন মুখ্যমন্ত্রী বেছে নিল বিজেপি, এলেন মানিক সাহা

হঠাৎ ইস্তফা বিপ্লব দেবের, ত্রিপুরার নতুন মুখ্যমন্ত্রী কে?

আচমকা ইস্তফা দিলেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব

ছাত্রীর পা ছুঁতে বাধ্য করা হল কলেজের অধ্যক্ষাকে, ‘গুন্ডাগিরি’তে অভিযুক্ত এবিভিপি নেতা

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন