মুর্শিদাবাদের বড়ঞায় ধুন্ধুমার! আক্রান্ত রাজ্যের মন্ত্রী, বিধায়ক

0

বহরমপুর: বুধবার বিকেলে আক্রান্ত হলেন রাজ্যের মন্ত্রী সুব্রত সাহা এবং স্থানীয় বিধায়ক জীবনকৃষ্ণ সাহা। জানা যায়, মন্ত্রীকে নিয়ে দুর্ঘটনায় নিহতদের বাড়িতে যাওয়াকে কেন্দ্র করে তৃণমূলের কোন্দলে কুরুক্ষেত্রে চেহারা নেয় মুর্শিদাবাদের বড়ঞা।

প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে, খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ মন্ত্রী সুব্রত সাহাকে হেনস্থা করা হয়। তাঁকে মারধরের পাশাপাশি দুই নেতার গাড়ি ঘিরে ইট ছোড়ে দুষ্কৃতীরা।

ঘটনায় প্রকাশ, কয়েক দিন আগে বর্ধমানের নতুনহাট এলাকায় পথদুর্ঘটনায় বড়ঞা থানার সৈয়দপাড়া এলাকায় একই পরিবারের ছ’জনের মৃত্যু হয়েছিল। এ দিন সাগরদিঘির বিধায়ক তথা মন্ত্রী সুব্রত সাহা এবং স্থানীয় বিধায়ক জীবনকৃষ্ণ-সহ তৃণমূলের কয়েক জন নেতা পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দেখা করে সমবেদনা জানান। অভিযোগ, সেখান থেকে ফেরার পথে কয়েক জন দুষ্কৃতী তাঁদের উপর হামলা চালায়। পুলিশ কর্মীরা পরিস্থিতি সামাল দিতে রীতিমতো হিমশিম খায়।

এই ঘটনার জেরে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে কান্দি মহকুমার বড়ঞা থানা এলাকার সোদপাড়া গ্রাম। দীর্ঘক্ষণের চেষ্টায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ। নতুন করে যাতে উত্তেজনা না ছড়ায়, সেই কারণে মোতায়েন হয়েছে বিশাল পুলিশ বাহিনী। পুরো এলাকা থমথমে।

এ দিকে, এই ঘটনায় বড়ঞা ব্লক তৃণমূলের সভাপতি গোলাম মুর্শেদ জর্জ এবং বড়ঞা ব্লক যুব তৃণমূল সভাপতি মাহে আলমের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন বিধায়ক জীবনকৃষ্ণ। অভিযোগ অস্বীকার করে ব্লক যুব তৃণমূল সভাপতি মাহে আলম জানিয়েছেন, এই ঘটনার পিছনে তাঁর কোনো ভূমিকাই নেই।

উল্লেখ্য, গত ৫ নভেম্বর কলকাতা থেকে মুর্শিদাবাদ ফেরার পথে বর্ধমানে পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় একই পরিবারের ছ’জনের। ওই দিন ভোরে বর্ধমানের দেওয়ানদিঘিতে ওই মর্মান্তিক দুর্ঘটনাটি ঘটে।

আজকের আরও কিছু উল্লেখযোগ্য খবর পড়তে পারেন এখানে:

দ্বিতীয় ডোজের ৬ মাস পরই বুস্টার ডোজের আদর্শ সময়, বলছে ভারত বায়োটেক

শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে মুখ খুলে বহিষ্কৃত হাওড়া সদরের বিজেপি সভাপতি সুরজিৎ সাহা

উদ্ধার বাক্সবন্দি হাজারখানেক ‘কন্যাশ্রী বালা’, চাঞ্চল্য

ফের এলাকা উন্নয়ন তহবিল পাবেন সাংসদরা, সিদ্ধান্ত কেন্দ্রের

হাইকোর্টের নির্দেশে আপাতত নিয়োগ বন্ধ উচ্চ প্রাথমিকে

ভারতের সবচেয়ে ধনী স্ব-প্রতিষ্ঠিত মহিলা বিলিওনেয়ার এখন Nykaa প্রতিষ্ঠাতা ফাল্গুনী নায়ার

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন