বিদেশিদের ঘটানো অপরাধে শীর্ষে পশ্চিমবঙ্গ: এনসিআরবি

0
Mamata and Dilip on NRC
প্রতীকী গ্রাফিক্স ছবি

ওয়েবডেস্ক: ২০১৮ সালে পশ্চিমবঙ্গে সব থেকে বেশি সংখ্যক এমন অপরাধের ঘটনা নথিভুক্ত হয়েছে, যেগুলিতে যুক্ত রয়েছে বিদেশি নাগরিকেরা। ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরো (এনসিআরবি)-র প্রকাশিত ২০১৮ সালের প্রতিবেদন থেকে জানা গিয়েছে, পশ্চিমবঙ্গে এ ধরনের অপরাধের ঘটনা ৭৪৪টি। যেখানে কর্নাটক এবং হিমাচলপ্রদেশে বিদেশি অপরাধীদের নথিভুক্ত অপরাধের সংখ্যা ১৭৫ এবং ১৪৭টি।

এনসিআরবির ২০১৭ সালের রিপোর্টে জানানো হয়েছিল, সে বছর পশ্চিমবঙ্গে এই ধরনের অপরাধ নথিভুক্ত হয়েছিল এর থেকেও বেশি, ১,০৪৮টি। তবে এনসিআরবি স্বীকার করে নিয়েছে, পশ্চিমবঙ্গ ছাড়াও বিজেপি শাসিত চারটি রাজ্য অপরাধমূলক কাজের ‘ব্যাখ্যা’ তাদের সরবরাহ করেনি। তারা জানায়, পশ্চিমবঙ্গ, অসম, অরুণাচলপ্রদেশ, মেঘালয় এবং সিকিমের কাছ থেকে ‘ব্যাখ্যা’ বকেয়া রয়েছে।

তবে পরিসংখ্যান থেকে জানা গিয়েছে, পশ্চিমবঙ্গে রেজিস্ট্রেশন ফর ফরেনার্স অ্যাক্ট, ১৯৩৯ এবং ফরেনার্স অ্যাক্ট, ১৯৪৬-এর আওতাধীন অপরাধের সংখ্যা ৭২৪টি। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেন্দ্রের বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ সরকারের তীব্র সমালোচক এবং নাগরিকত্ব (সংশোধনী) আইন (সিএএ) এবং জাতীয় জনসংখ্যা নিবন্ধন (এনপিআর) প্রয়োগ করতে তিনি অস্বীকার করেছেন।

এর আগেই জানা গিয়েছিল, ২০১৭ সালের এনসিআরবির তথ্য অনুসারে, সমস্ত রাজ্যের মধ্যে পশ্চিমবঙ্গে সর্বাধিক বিদেশি বন্দি রয়েছে। ওই রিপোর্ট অনুযায়ী, রাজ্যের জেলে ১,৩৭৯ জন বিদেশি বন্দি রয়েছে। অন্য দিকে পশ্চিমবঙ্গেই সারা দেশের মোট বিদেশি বন্দিদের মধ্যে প্রায় ৬১.৯ শতাংশ রয়েছে।

এ প্রসঙ্গে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ জানিয়েছিলেন, “এনসিআরবি-র পরিসংখ্যানগুলি প্রমাণ করে যে বাংলাদেশ থেকে ধারাবাহি কভাবে অবৈধ অনুপ্রবেশ আমাদের জাতীয় সুরক্ষাকে ঝুঁকিপূর্ণ করে তুলছে। এই তথ্য এনআরসি-র জন্য আমাদের দাবির প্রবণতা বাড়াতে সহায়তা করবে”।

যদিও আন্তর্জাতিক সীমান্তের দেখাশোনার দায়িত্ব কেন্দ্রের হাতে রয়েছে বলে দায় এড়িয়েছে রাজ্যের শাসক দল।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.