গত এক মাসে রাজ্যের এই জেলায় বজ্রপাতে মৃত্যু হয়েছে ৩০ জনের

0

পুরুলিয়া: শুধুমাত্র বজ্রপাতের কারণে পুরুলিয়া জেলা জুড়ে গত এক মাসে মৃত্যু হয়েছে ৩০ জনের। জেলা প্রশাসন সূত্র এমনই তথ্য পাওয়া গিয়েছে। ব্যাপারটা নিয়ে যথেষ্ট উদ্বিগ্ন জেলা প্রশাসন। এই মৃত্যুমিছিল আটকাতে ইতিমধ্যে বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের সঙ্গে কথা হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলাশাসক রাহুল মজুমদার।

গত শুক্রবার বজ্রপাতের জেরে তিন জনের মৃত্যু হয়েছিল জেলায়। তার কিছু দিন আগে আরও বেশ কয়েক জনের মৃত্যু হয়। এ বার প্রাণহানির সংখ্যা কেন বেশি, তার নির্দিষ্ট কারণ প্রশাসনের জানা নেই। তবে অন্য একটি ব্যাখ্যা দিচ্ছেন প্রশাসনিক আধিকারিকরা।

এ বার গোটা দক্ষিণবঙ্গের মতো পুরুলিয়াতেও বর্ষার প্রথমে কার্যত কোনো বৃষ্টি হয়নি। বৃষ্টি শুরু হয় জুলাইয়ের শেষ সপ্তাহ থেকে। এখন জেলা জুড়ে ধান রওয়ার কাজ চলছে জোরকদমে। সেই কারণে মাঠে থাকতে হচ্ছে কৃষকদের। বাড়ির বাইরে থাকার কারণে অনেকের মৃত্যু হয়েছে বলে মনে করছে প্রশাসন।

সাধারণত দূষণের মাত্রা বেশি থাকলে বজ্রপাতের পরিমাণ বেশি হয়। কিন্তু পুরুলিয়ায় দূষণের মাত্রা অন্য জেলার থেকে কম। তার পরেও কেন এত বজ্রপাত জেলা জুড়ে? এই বিষয়ে একটি ব্যাখ্যা দিয়েছেন পুরুলিয়া বিজ্ঞান কেন্দ্রের এক আধিকারিক। তাঁর মতে, নিয়মিত বৃষ্টি না হওয়াই এর অন্যতম কারণ।

আরও পড়ুন উন্নাও কাণ্ডে সিবিআইকে নতুন নির্দেশ শীর্ষ আদালতের

ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘‘ধুলিকণা উপরে উঠে বজ্রগর্ভ মেঘ তৈরি করে। দূষণ এবং অন্য কারণে ধুলিকণা বেশি তৈরি হচ্ছে। নিয়মিত বৃষ্টি হলে তা বৃষ্টির সঙ্গে মাটিতে নেমে আসতে পারত। কিন্তু তা না হওয়ায় ধুলিকণা বেশি পরিমাণে বজ্রগর্ভ মেঘ তৈরি করছে।”

এই মৃত্যুমিছিলের পরে আরও বেশি করে সতর্ক হয়েছে প্রশাসন। বৃষ্টির সময়ে বাড়ির বাইরে কেউ যাতে না বেরোন, সেই ব্যাপারে সচেতনতামূলক প্রচার চালানো হচ্ছে। জেলার পঞ্চায়েতগুলিও এই ব্যাপারে এগিয়ে এসেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here