toytrain captain
টয়ট্রেনের ক্যাপ্টেন।

নিজস্ব প্রতিনিধি, শিলিগুড়ি: নিউ জলপাইগুড়ি-হাওড়া শতাব্দী এক্সপ্রেস এবং দার্জিলিংগামী টয়ট্রেনে ‘ক্যাপ্টেন অব দ্য ট্রেন’ হিসেবে একজনকে দায়িত্ব দিল উত্তরপূর্ব সীমান্ত রেল। পর্যায়ক্রমে অন্যান্য ট্রেনেও এই পরিষেবা চালুর কথা ঘোষণা করা হল।

‘ক্যাপ্টেন অফ দ্য ট্রেন’ অর্থাৎ ট্রেনের অধিনায়ক পুরো ট্রেনটির যাত্রী-পরিষেবার দায়িত্বে থাকবেন। ট্রেনটির যাত্রাপথে যাত্রীদের পানীয় জল সরবরাহ, বগি এবং শৌচাগারের পরিচ্ছন্নতার ওপরে নজর রাখবেন। এ ছাড়াও বৈদ্যুতিক জিনিসপত্র যেমন পাখা, এসি, মোবাইল চার্জিং পয়েন্ট ঠিকঠাক কাজ করছে কি না সেটাও তিনি দেখবেন।

কোনও যাত্রী কোনো সমস্যার কথা ট্রেনের অধিনায়ককে জানালে তিনি দ্রুত সমস্যার সমাধান করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করবেন। চলন্ত ট্রেনে যদি সেই সমস্যার সমাধান না হয় তা হলে পরবর্তী যে স্টেশনে ট্রেনটি দাঁড়াবে সেখানকার স্টেশন ম্যানেজারকে আগেভাগে জানিয়ে সমস্যার সমাধান করার পুরো দায়িত্ব নেবেন। এর পরেও সমস্যার সমাধান না হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য দফতরের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের নজরে বিষয়টি আনবেন।

এ জন্য যাত্রীদের ওই অধিনায়কের ফোন নম্বর দিয়ে দেওয়া হবে। শুক্রবার ভোর সাড়ে ৫টায় হাওড়াগামী শতাব্দী এক্সপ্রেসে এই প্রকল্পের সূচনা করা হয়। ঘণ্টা তিনেক পরে সকাল সাড়ে ৮টা নাগাদ এনজেপি স্টেশন থেকে দার্জিলিংয়ের উদ্দেশে রওনা হওয়া টয়ট্রেনেও ক্যাপ্টেন অফ দ্য ট্রেন হিসেবে একজনকে দায়িত্ব দেওয়া হয়।

আপাতত টিকিট পরীক্ষকদেরই এই বাড়তি দায়িত্ব দেওয়া হলেও পরবর্তীতে এই পদে স্থায়ী ভাবে কাউকে নিয়োগ করা হবে বলে রেল সূত্রে জানা গিয়েছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here