কলকাতা: আলিপুর চিড়িয়াখানায় নিশাচর প্রাণীদের জন্য তৈরি করা হচ্ছে বিশেষ ঘর। এর পোশাকি নাম নকচারনাল হাউজ বা নিশাচরদের ঘর। প্রথম পর্যায়ে এই বিশেষ ঘরে পাঁচ ধরনের নিশাচর প্রাণী রাখা হবে। পেঁচা, বাদুড়, স্লো লরিস, হায়না এবং সজারুকে এই ঘরে রাখা হবে। নতুন বছরের আগেই এই ঘর খুলে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন বনমন্ত্রী বিনয়কৃষ্ণ বর্মন।

বনমন্ত্রী বলেন, “এই ঘরের কাজ ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে। নতুন বছরের আগেই তা খুলে দেওয়া হবে। দিনের আলো বেশি যাতে এই ঘরে না ঢোকে সেই দিকেও নজর দেওয়া হবে।”

১২ ফুট বাই ১৭ ফুটের একটি ঘর ছিল চিড়িয়াখানায়। তার জায়গাতেই এই ঘর তৈরি করা হবে। এই প্রকল্পের কাজে কুড়ি লক্ষ টাকা খরচ হবে বলে জানা গিয়েছে।

এ দিকে বুধবার থেকে চিড়িয়াখানায় শিশুদের জন্য পাঁচ দিনের ‘জু ফেস্টিভাল’ শুরু হয়েছে। শহরের ৪০টি স্কুলের কচিকাঁচারা এই উৎসবে অংশ নেবে। আঁকার প্রতিযোগিতা, তাৎক্ষণিক বক্তৃতা-সহ একাধিক প্রতিযোগিতার বন্দোবস্ত করা হচ্ছে এই উৎসবে। ছোটোদের মধ্যে বন্যপ্রাণীদের নিয়ে সচেতনতা জাগিয়ে তোলাই এই উৎসবের মূল উদ্দেশ্য, এমনই জানিয়েছেন বিনয়কৃষ্ণবাবু।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here