উদ্ধার হওয়া সামগ্রী

ওয়েবডেস্ক:  নদিয়ার কৃষ্ণগঞ্জের তৃণমূল বিধায়ক সত্যজিৎ বিশ্বাস খুনে নতুন করে উত্তেজনা ছড়াল স্থানীয় এলাকায়। এ দিন সকালেই ধৃত সুজিত মণ্ডলের বাড়িতে যায় ধৃতের বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে মিলেছে একাধিক সন্দেহজনক কাগজপত্র এবং অস্ত্র।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, পুলিশের হাতে গ্রেফতার হওয়া সুজিতের বাড়ি থেকে পাওয়া গিয়েছে প্রচুর পরিমাণ কাগজপত্র, ন্যাপলা-হাঁসুয়া জাতীয় ধারালো অস্ত্র এবং আগ্নেয়াস্ত্র। একই সঙ্গে মিলেছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ছবি-সহ বিজেপির ভিন রাজ্যের বিভিন্ন ব্যক্তির ফোন নম্বর লেখা কাগজ। সুজিতের বাড়ি থেকেই পাওয়া গিয়েছে অসংখ্য মোবাইল সিমকার্ড। স্থানীয় বাসিন্দারা বাড়ির সামনের কিছু অংশ মাটি খুঁড়ে দেখছেন। তাঁদের আশঙ্কা, সেখানে আরও আগ্নেয়াস্ত্র থাকতে পারে।

Satyajit Biswas
সত্যজিৎ বিশ্বাস। ফাইল ছবি

জানা গিয়েছে, প্রথমে স্থানীয় মানুষ এবং তৃণমূল সমর্থকরা এই তল্লাশি চালালেও পরে সেখানে হাজির হয় স্থানীয় থানার পুলিশ আধিকারিকরাও। তাঁরা হাঁসখালিতে সুজিতের বাড়িতে তল্লাশি চালান।

অন্য দিকে এই ঘটনায় প্রধান অভিযুক্ত অভিজিৎ পুণ্ডারীর হদিশ এখনও পায়নি পুলিশ। তল্লাশি চললেও অনেকের আশঙ্কা, অভিজিৎ প্রতিবেশী দেশ বাংলাদেশে পালিয়ে যেতে পারে। কারণ, এলাকা থেকে বাংলাদেশের দূরত্ব খুব বড়োজোর ১৫ কিমি।

[ সত্যজিৎ বিশ্বাস খুনের অন্যান্য খবর পড়তে এখানে ক্লিক করুন ]

এই আশঙ্কা উড়িয়ে দিতে পারছে না পুলিশও। তদন্তকারীরা দেখেছেন, ঘটনার পর সোশ্যাল মিডিয়ায় অভিজিৎকে পাওয়া গেলেও পরে সেই নম্বরটি ডি-অ্যাক্টিভেট হয়ে যায়। ফলে এলাকা ছেড়ে অন্যত্র চলে যাওয়ার সম্ভাবনা প্রবল বলে মনে করছে তদন্তকারীরাও। অন্য দিকে এই খুনের ঘটনার সঙ্গে অভিজিতের ঠিক কতটা যোগাযোগ রয়েছে, সে বিষয়গুলিও খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here