খবরঅনলাইন ডেস্ক: দক্ষিণবঙ্গের পাশাপাশি বৃহস্পতিবার ব্যাপক বৃষ্টি হয়েছে পাহাড়েও। সেই কারণে পশ্চিমবঙ্গ এবং সিকিম সীমানার একাধিক জায়গায় ধস নেমেছে বৃহস্পতিবার রাত থেকে। যার জেরে ১০ নম্বর জাতীয় সড়কের একটা বড়ো অংশ অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার রাতে অতিবৃষ্টি হয়েছে দার্জিলিং আর কালিম্পং জেলায়। দার্জিলিংয়ে ১০৭ মিলিমিটার বৃষ্টি রেকর্ড করা হয়। এর ফলে ১০ নম্বর জাতীয় সড়ক ছাড়াও দার্জিলিং এবং কালিম্পং সংলগ্ন বেশ কয়েকটি রাস্তায় বন্ধ রয়েছে গাড়ি চলাচল।

পশ্চিমবঙ্গ এবং সিকিম সীমানার রংপো, মিল্লির মতো এলাকাগুলিতে ধস ভয়াবহ পরিস্থিতির তৈরি করেছে। এমননিতেই করোনা বিধিনিষেধের জন্য সিকিমে সীমিত সংখ্যক গাড়ি চলাচল করছে। দার্জিলিং থেকে কালিম্পং আসার রাস্তাও ধসের কবলে পড়েছে বলে জানা গিয়েছে। ১০ নম্বর জাতীয় সড়কের উপর ২৯ মাইল এলাকাও গিয়েছে ধসের কবলে। ওই অঞ্চলে এখন তিস্তার জল কার্যত রাস্তার কানায় কানায়।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার দার্জিলিঙের সিঙ্গমারির নীচে সিংটাম এলাকাতেও নামে ধস। যার জেরে সেখানকার একাধিক বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তবে ধসের জেরে কোনো প্রাণহানির খবর পাওয়া যায়নি। এর ফলে দার্জিলিং থেকে বিজনবাড়ির মধ্যে যান চলাচল ব্যাহত হয়েছে।

তবে শুক্রবার সকাল হতেই স্থানীয় প্রশাসন উদ্ধার কাজ শুরু করেছে। যত দ্রুত সম্ভব পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে তোলার চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

আরও পড়তে পারেন ফিরল ২০০৭-এর স্মৃতি, নিম্নচাপের প্রভাবে অতি ভারী বৃষ্টিতে এক সন্ধ্যাতেই ভেসে গেল কলকাতা

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন