Rahul Gandhi at Maldah rally

ওয়েবডেস্ক: শনিবার মালদহের চাঁচোলের কদমবাগান মাঠের সভা থেকে একাধিকবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম ধরে আক্রমণ শানাতে শোনা গেল সর্বভারতীয় কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীকে। তিনি অভিযোগ করে বলেন, আগের বাম প্রশাসনের তুলনায় পশ্চিমবঙ্গের বর্তমান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার মোটেই “ভাল” নয়।

সংবাদ সংস্থা আইএএনএস জানিয়েছে, রাহুল ওই সভায় বলেন, “শুধু মাত্র একজন ব্যক্তি বাংলাকে পরিচালনা করছেন। তিনি কারো সঙ্গে কথা বলেন না, পরামর্শও নেন না। তিনি নিজে যা মনে করেন, সেটাই করেন”। একই সঙ্গে তিনি প্রশ্ন ছুড়ে দিয়ে বলেন, “বাঙালির কি কোনো প্রতিবাদী কণ্ঠ নেই? এ ভাবে এক ব্যক্তির শাসনকে কি মেনে নেওয়া উচিত”?

রাহুলের কথায়, “এ রাজ্যে কৃষকঋণ মকুব করা হয়নি। বেকারদের চাকরি জোটেনি। স্বাস্থ্য, শিক্ষায় উন্নতি নেই। কেন্দ্রে কংগ্রেস এলে, এ রাজ্যেও বিকাশ হবে। বাংলা পিছিয়ে থাকবে না”।

এ প্রসঙ্গেই তিনি তুলে ধরেন বাম জমানার কথা। তাঁর মতে, “৩৪ বছরের বামশাসনে যে অত্যাচার হয়েছে, একই ছবি দেখা যাচ্ছে তৃণমূল জমানাতেও। কংগ্রেস কর্মীরা আক্রান্ত হচ্ছেন। বামেদের মতোই বাংলার উন্নয়নে ব্যর্থ হয়েছেন মমতা। যে কারণে বাংলার অবস্থা একই রকম রয়ে গিয়েছে। তাই কংগ্রেস এ রাজ্যে তৃণমূলের বিরুদ্ধে লড়বে। কংগ্রেস কর্মীদের উদ্দেশে বলব, তাঁরা যেন কংগ্রেসের আদর্শ থেকে সরে না যান”।

একই সঙ্গে নাম না-করে সদ্য কংগ্রেস-ত্যাগী মালদহ উত্তরের সাংসদ মৌসম বেনজির নুরকেও নিশানা করেন রাহুল

এ দিনের সভা থেকেই কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদী সরকারকে ঘৃণা ছড়ানোর অভিযোগে অভিযুক্ত করেন তিনি। বিজেপি কীভাবে দেশে ধর্মীয় মেরুকরণের রাজনীতি করছে, সে কথাও উল্লেখ করেন। তাঁর সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে ঘুরেফিরে আসে বিজেপি নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকারের রাফাল-সহ একাধিক দুর্নীতির অভিযোগ।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here